২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন ব্লাটার!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সদ্যই ঘোষণা করা হয়েছে ফিফার সভাপতি নির্বাচনের পরবর্তী তারিখ। আগামী বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি বিশেষ ফিফা কংগ্রেসে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সেপ ব্লাটার জানিয়েছেন, এ নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। তার মানে, ফিফা থেকে ব্লাটারের একচ্ছত্র আধিপত্যও শেষ হচ্ছে।

অথচ গত মে মাসে পঞ্চমবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন ব্লাটার। কিন্তু পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর যেন সুইস এই ফুটবল কর্তাকে বিতর্ক ঘিরে ধরে। যে কারণে নির্বাচিত হওয়ার পর ফিফা সভাপতি পদ থেকে পদত্যাগ করেন ৭৯ বছর বয়সী ব্লাটার। টানা পঞ্চমবারের মতো ফিফার মসনদে আসীন হওয়ার চার দিনের মধ্যে তিনি এ ঘোষণা দেন। এখন শোনা যাচ্ছে, ব্লাটারকে নাকি পদত্যাগে বাধ্য করা হয়েছিল। রাশিয়া বিশ্বকাপের ড্র অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এক সাক্ষাতকারে এমন ইঙ্গিতপূর্ণ কথাই বলেন ব্লাটার। ব্লাটার বলেন, বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা আটক হওয়ার পর চারিদিক থেকে সমালোচনা হতে থাকে। অনেকেই পদত্যাগের জন্য চাপ দিতে থাকেন। যে কারণে আমি অনেকটা বাধ্য হয়েছি।

এদিকে ফিফার ভাবমূর্তি ফেরানোর প্রক্রিয়া থেকে ব্লাটারকে দূরে থাকতে বলেছেন জর্ডানের রাজপুত্র আলী বিন আল হুসেইন। মে মাসে ফিফার নির্বাচন চলাকালীন নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন সভাপতি পদপ্রার্থী আলী। গত সোমবার ফিফাকে ঢেলে সাজাতে একটি টাস্কফোর্স গঠন করেছেন ব্লাটার। ফিফার ভাবমূর্তি ফেরানোর জন্য এই টাস্কফোর্সকে একমাসের মধ্যে প্রস্তাব দিতে বলা হয়েছে। ব্লাটারকে অবিলম্বে সরে দাঁড়াতে বলে আলী জানিয়েছেন ফিফাকে ঢেলে সাজানোর কাজটা পরবর্তী সভাপতির হাতে ছেড়ে দেয়া উচিত।

সীমাহীন দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগের মধ্য দিয়েই টালমাটাল ফিফায় পঞ্চমবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন ব্লাটার। কিন্তু বিতর্কের কারণে সিংহাসন ধরে রাখতে পারেননি তিনি। মে মাসের নির্বাচনের দুই দিন আগে দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থার নয় শীর্ষ কর্মকর্তাসহ মোট ১৪ জনকে আটক করে সুইস পুলিশ। যে কারণে পদত্যাগ করেন তিনি। পদত্যাগ প্রসঙ্গে জানাতে গিয়ে ব্লাটার বলেছিলেন, আমি ফিফা ও এর স্বার্থগুলোর সঙ্গে খুব ভালভাবে জড়িত। এগুলো আমার খুব কাছের। এ জন্যই আমি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি আরও বলেন, আমার কাছে ফিফা ও বিশ্বজুড়ে ফুটবল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। জোয়াও হ্যাভেলাঞ্জের উত্তরসূরি হিসেবে ১৯৯৮ সালে ফিফা প্রধান হন ব্লাটার। চার দশক ধরে বিশ্ব ফুটবলের অভিভাবক সংস্থায় কাজ করার পর অবশেষে সরে দাঁড়িয়েছেন এই সুইস। বিদায়বেলায় তিনি বলেন, ফিফা প্রধান আর আমার জীবনের ৪০টা বছর ফিফায় কাটানো সময়টা নিয়ে আমি গভীরভাবে ভেবেছি। ফিফাকে আমি যেকোন কিছুর চাইতে বেশি ভালবাসি। আমি এর ভাল চাই। ফুটবলের ভালর জন্যই আমি আরেক মেয়াদে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলাম। কিন্তু সবাই আমাকে সমর্থন দেয়নি।