১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সড়ক নয় যেন খাল

মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জ-ঢাকা সড়কের জোরপুকুরপাড় থেকে মানিকপুর পর্যন্ত দু’কিলোমিটার এলাকা ল-ভ-। বড় বড় গর্ত আর পানি জমে হয়েছে মনে হবে রাস্তা নয়, যেন খাল। তাই পথচারীদের কষ্টের যেন সীমা নেই। শহরের অনেক সড়কের চলাচলের অনুপযোগী এ রাস্তায় প্রায় প্রতিদিন ঘটছে দুর্ঘটনা, দুর্ভোগ বড়েইে চলেছে। রাস্তাটির মালিক এলজিইডি (স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর) জানিয়েছে, মোবাইল প্যাকেজের আওতায় সাময়িকভাবে চলাচলের উপযোগী করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে আর চলতি বছরেই রাস্তাটি পুনর্বাসনের আওতায় নতুন করে করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকায় যাতায়াত করতে এবং জেলার টঙ্গিবাড়ী, লৌহজং, শ্রীনগর ও সিরাজদিখান উপজেলার লোকজনকে জেলা শহরে আসতে হয় এই সড়ক দিয়ে। জেলা শহরের সঙ্গে সংযোগ করা গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কে রাতদিন হাজার হাজার মানুষের চলাচল। চলাচল করে শত শত বাস, ট্রাক, মাইক্রোবাস, সিএনজি স্কুটার, অটো ও রিক্সাসহ সব ধরনের যানবাহন। দীর্ঘদিন ভাঙ্গা থাকলেও এবারের বর্ষা মৌসুমে এই সড়কে অসংখ্য বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বর্ষায় বৃষ্টি হলেই রাস্তার বড় বড় গর্তগুলোতে পানি জমে সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। আর এসব গর্তে যানবাহন উল্টে গিয়ে প্রায় প্রতিদিন ঘটছে দুর্ঘটনা।

জলাবদ্ধতার জন্য রাস্তার আশপাশের নিচু জায়গা ও ডোবা অপরিকল্পিত ভরাট হয়ে পানি নিষ্কাশিত

হতে না পেরে রাস্থা ভেঙ্গে যাচ্ছে বলে জানান, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী ওয়াহিদুজ্জামান। তিনি জানান, মোবাইল প্যাকেজের আওতায় সাময়িকভাবে চলাচলের উপযোগী করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। চলতি বছরেই পুনর্বাসনের আওতায় নতুন করে করা হবে।