১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অতিবর্ষণে আমতলী-তালতলীর আমন চাষীদের সর্বনাশ

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী (বরগুনা) ॥ অতিবর্ষণে আমতলী ও তালতলী উপজেলার অধিকাংশ কৃষি জমিতে ভয়াবহ জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। ৪০ হাজার কৃষকের সর্বনাশ দেখা দিয়েছে। পানি নিস্কাশনের সুষ্ঠূ ব্যবস্থা না থাকায় মাঠের পর মাঠ বৃষ্টির পানিতে থৈ থৈ করছে। আমন ধানের বীজতলা পানিতে তলিয়ে গিয়ে পঁচে গেছে। নতুন করে বীজতলা করতে পাছে না। আমনের বীজতলা তৈরিতে কৃষকরা ব্যর্থ হওয়াতে এ বছর আমন ধানের লক্ষ্য মাত্রা অর্জিত না হওয়ার আশঙ্কা করেছে কৃষি বিভাগ।

শনিবার আমতলী উপজেলার হলদিয়া, আঠারগাছিয়া, আমতলী সদর ও তালতলীর ছোটবগী, পচাকোড়ালিয়া ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, মাঠের পার মাঠ পানিতে তলিয়ে রয়েছে। জলকপাট দিয়ে পানি নিস্কাশন হচ্ছে না। ছোটবগী ইউনিয়নের মৌপাড়া গ্রামের এক মুখের জলকপাট স্থানীয় জাহাঙ্গীর তালুকদার দখল করে মাছের ঘের করেছেন। স্থানীয়রা অভিযোগ করেন এ জলকপাট দিয়ে তার ইচ্ছামত পানি উঠানামা করাচ্ছে।

আমতলী কৃষি অফিসার এস এম বদরুল আলম জানান অতিরিক্ত জলাবদ্ধতার কারনে কৃষক আমনের বীজতলা তৈরি করতে পারছে না। এতে আমনের লক্ষমাত্রা অর্জনে ঘটতি দেখা দিবে।