২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংসদের আগামী অধিবেশনেই উত্থাপিত হবে ‘আদিবাসী অধিকার আইন’ বিল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জাতীয় সংসদের আগামী অধিবেশনে প্রস্তাবিত ’আদিবাসী অধিকার আইন’ বেসরকারী বিল আকারে উত্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাসের নেতারা। সংসদের বাছাই কমিটিতে জমা দেয়ার সময় সংবাদ সম্মেলন করে বিলটির বিষয়বস্তু ও প্রয়োজনীয়তা জাতির সামনে তুলে ধরা হবে বলেও জানানো হয়।

রবিবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে ককাসের উদ্যোগে আয়োজিত ‘বাংলাদেশ আদিবাসী অধিকার আইন চূড়ান্তকরণ’ শীর্ষক এক কর্মশালায় তারা এসব কথা বলেন। কর্মশালা সঞ্চালনা করেন গবেষণা ও উন্নয়ন কালেকটিভ’র সাধারণ সম্পাদক মীর জান্নাতে ফেরদৌস। সভাপতিত্ব করেন আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাস’র আহ্বায়ক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র আ ম ওবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরী, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান, আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাস’র টেকনিক্যাল কমিটির সমন্বয়কারী মেজবাহ কামাল, বাংলাদেশ আদিবাসী ফোরামের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জীব দ্রং। এছাড়াও বিভিন্ন আদিবাসী সংগঠনের প্রতিনিধিরা আদিবাসীদের নিরাপত্তা বিধান ও অধিকার সংরক্ষণে বিভিন্ন প্রস্তাবনা রাখেন।

কর্মশালায় আদিবাসীদের নিরাপত্তা, অধিকার সংরক্ষণ ও জমি হস্তান্তর প্রক্রিয়া বিষয়ক একটি আইনের খসড়া প্রস্তাবনা উপস্থাপন করেন আদিবাসী বিষয়ক সংসদীয় ককাস’র টেকনোক্র্যাট সদস্য শ্রী গৌতম কুমার চাকমা।

এ খসড়ার বিষয়ে আলোচনা করতে গিয়ে বক্তারা আদিবাসীদের ভূমি-বন-প্রাকৃতিক সম্পদের ওপর অধিকার, স্বশাসন প্রতিনিধিত্বের অধিকার, সামাজিক ন্যায়বিচার ও মানবধিকার, ভাষা-শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক অধিকার, পরিবেশগত ন্যায্যতার অধিকার, স্বতন্ত্র জাতিসত্ত্বার মর্যাদা, নৃতাত্ত্বিক বৈষম্যমূলক আচরণ রোধের করণীয় বিষয়ে তাদের মতামত দেন। এসময় সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, জাতীয় সংসদের আগামী অধিবেশনের তারিখ ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে বিল জমা দেয়া হবে। বিলটি পাস করানো অত্যন্ত কঠিন হলেও অসম্ভব নয়।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া