২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মারিয়ার নতুন ‘হিরো’

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ বিশ্ববিখ্যাত পপসঙ্গীত শিল্পী মারিয়া ক্যারে। মারিয়ার দীর্ঘ সঙ্গীত ক্যারিয়ারের ব্যর্থতা, ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা, অসুস্থ হয়ে বেশ কয়েকবার হাসপাতালেও ভর্তি হওয়ার রেকর্ড আছে। সব মিলিয়ে নানাভাবে আলোচনায় থাকেন তিনি। তবে তার সঙ্গীত জীবনে প্রাপ্তিও কম নয়। পাঁচটি গ্র্যামি এ্যাওয়ার্ড, ১৭ ওয়ার্ল্ড মিউজিক এ্যাওয়ার্ড আর ৩১ বিলবোর্ড মিউজিক এ্যাওয়ার্ড জেতা মারিয়া ক্যারির উত্থান আর পতন দেখেছে বিশ্ব।

৪৩ বছর বয়সী এই পপ সেনসেশনের জীবনের অন্যতম উপহার তাঁর নতুন হিরো। সম্প্রতি নিজের জীবনের নায়ককেই নিজের কেরিয়ারের মোড় ঘুরিয়ে দেয়া গান উৎসর্গ করেছেন। তাঁর নামের সঙ্গে সমার্থক হয়ে গিয়েছে ‘হিরো’ গানটি। জানা গেছে অস্ট্রেলিয়ার ব্যবসায়ী জেমস প্যাকারকে এই গানটি উৎসর্গ করেছেন মারিয়া। ইতালিতে দু’জনে ছুটি কাটানোর সময়ে প্যাকারের সঙ্গে মারিয়ার ছবি প্রকাশ্যে আসে। ‘ইমোশনস’, ‘মিউজিক বক্স’, ‘মেরি ক্রিসমাস’, ‘ডে-ড্রিম’, ‘বাটারফ্লাই’, ‘রেনবো’-র মতো হিট এ্যালবামের স্রষ্টার জীবনে গত বছরই নেমে এসেছিল বিবাহ-বিচ্ছেদের অন্ধকার। তবে সে সব যে তিনি কাটিয়ে উঠেছেন, তা নতুন ‘হিরো’-র আগমনেই বোঝা যাচ্ছে। সংশ্লিষ্টরা তাই মনে করছেন।

এদিকে গত বছর মুক্তি পায় পপতারকা মারিয়া ক্যারির নতুন এ্যালবাম ‘মি, আই এ্যাম মারায়া...দ্য ইলুসিভ শন্তুজ’। এটি ছিল তাঁর ১৪তম এ্যালবাম। এর আগে ২০০৯ সালে মুক্তি পায় মারিয়া ক্যারির ১৩তম এ্যালবাম ‘মেমোরিজ অব অ্যান ইমপারফেক্ট এঞ্জেল’। তবে বিগত ১২টি এ্যালবামের তুমুল ব্যবসায়িক সাফল্যের ধারাবাহিকতা রাখতে ব্যর্থ হয় আনলাকি থার্টিন এই এ্যালবামটি। ২০১০ সালে বাজারে আসা ‘মেরি ক্রিসমাস টু ইউ’ একদমই ভাল চলেনি। ১৯৯০ সালে নিজের নামেই এ্যালবাম করে সঙ্গীতে ক্যারিয়ার শুরু করে মারিয়া। কলম্বিয়ানা রেকর্ডসের ব্যানারে এই এ্যালবামে ছিল স্লো ব্যালেডস আর ড্যান্স নাম্বার। অভিষেক এ্যালবামেই হিট পান মারিয়া। এ্যালবামের চারটি সিঙ্গেলই জায়গা করে নেয় বিলবোর্ড হট ১০০ তালিকায়। কলম্বিয়ানা রেকর্ডের সঙ্গে সম্পর্ক আরও পাকাপোক্ত হয় সংস্থার নির্বাহী টমি মটোলার সঙ্গে বিয়ের পর। এর পর তো তিনি ইতিহাস। সেই ইতিহাসকে পুঁজি করে এগিয়েছেন বহুদূর।

নির্বাচিত সংবাদ