২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গোপালগঞ্জে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় মেয়ের বাবা হামলার শিকার

নিজস্ব সংবাদদাতা, গোপালগঞ্জ, ২৬ জুলাই ॥ গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে যৌন হয়রানিতে বাধা দেয়ায় মেয়ের বাবার দু’পা ভেঙ্গে দিয়েছে বখাটে যুবক সুজন মোল্লা ও তার সঙ্গীরা। মেয়ের দু’ভাইকেও তারা বেধড়ক মারপিট করে আহত করেছে। রবিবার সকালে কাশিয়ানী উপজেলার কামারোল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত বাবা সাহাবুদ্দিন মোল্লা ও তার ছেলে রাসেল মোল্লাকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আরেক ছেলে কলেজ পড়ুয়া তাজুল মোল্লাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাহাবউদ্দিন মোল্লা জানিয়েছেন, তার ৭ম শ্রেণীতে পড়ুয়া মেয়ে ঝিল্্মিল্্কে প্রতিবেশী মৃত ফায়েক মোল্লার বখাটে ছেলে সুজন মোল্লা প্রায়ই উত্ত্যক্ত করে। গত ৩০ মে রাত সাড়ে ৯টার দিকে সুজন তার ঘরের মধ্যে প্রবেশ করলে আমার মেয়ে চিৎকার দেয়। এতে সুজন ঘর থেকে বের হয়ে যায়। ঈদ উপলক্ষে আমার ছেলেরা বাড়িতে আসার পর শনিবার বিকেলে বিষয়টি নিয়ে সুজনকে চড়-থাপ্পড় মারে। এর জের ধরে সুজন মোল্লা ও তার দু’ভাই রাজীব ও বিপ্লবসহ তাদের সঙ্গীরা রবিবার সকালে আমাদের ওপর লাঠিসোঁটা নিয়ে চড়াও হয় এবং বেধড়ক মারপিট করে আহত করে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগ সূত্র জানিয়েছে, সাহাবউদ্দিন মোল্লার দু’পা ভেঙ্গে গেছে।