১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাতক্ষীরায় ধর্ষণ মামলা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে পুলিশকে ম্যানেজ করে একটি ধর্ষণ মামলার আসামিরা থানা থেকে চূড়ান্ত প্রতিবেদন নেয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। রবিবার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন আশাশুনি উপজেলার ধর্ষণের শিকার এক বিধবা। ধর্ষণের শিকার মামলার বাদীর অভিযোগ, ডাক্তারি পরীক্ষায় ধর্ষণ প্রমাণিত হওয়ার পরও পুলিশ মামলা নেয়নি। আদালতের নির্দেশে থানা মামলা রেকর্ড করলেও গত ৩ মাসে পুলিশ একজন ধর্ষককেও আটক করেনি।

এ বিষয়ে আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ধর্ষিতার অভিযোগ অস্বীকার করে রবিবার বিকেলে বলেন, মেডিক্যাল রিপোর্টে ধর্ষণের কথা বলা হলেও কাদের দ্বারা ধর্ষণ হয়েছে সেটি এখনও প্রমাণিত হয়নি। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ধর্ষিতা, স্বামী মারা যাওয়ার পর একমাত্র ছেলেকে নিয়ে তিনি বাবার বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। গত ১৫ মে রাতে লাঙ্গলদাড়িয়া গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দিন শেখের ছেলে সবুর শেখ, একই গ্রামের ওমর মল্লিকের ছেলে মহিউদ্দিন মল্লিক ও হাজরাখালী গ্রামের মৃত মতি গাজীর ছেলে কোহিনুর গাজী তার ঘরে ঢুকে মারপিট করে এবং জীবননাশের হুমকি দিয়ে জোরপূর্বক তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।