২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইসিতে আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে এক মাস সময় চেয়েছে আ’লীগ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নিবন্ধিত দল হিসেবে আয়-ব্যয়ের হিসাব নির্বাচন কমিশনে জমা দিতে এবারও এক মাস সময় চেয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। রবিবার দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-দফতর সম্পাদক এ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপির নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে গিয়ে সচিবের কাছে আবেদনটি জমা দিয়েছেন। মৃণাল কান্তি দাস জনকণ্ঠকে জানান, বার্ষিক আর্থীক আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে ইসির কাছে এক মাসের সময় চাওয়া হয়েছে।

আগামী ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ২০১৪-১৫ সালে নিবন্ধিত সকল রাজনৈতিক দলের বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়ার বাধ্যবাদকতা রয়েছে। নিবন্ধিত ৪০টি রাজনৈতিক দলকে তাদের আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে ইতোমধ্যে চিঠিও দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। পরপর তিন বছর কোন দল আয়-ব্যয়ের হিসাব দিতে ব্যর্থ হলে সেই দলের নিবন্ধন বাতিলের ক্ষমতা রয়েছে নির্বাচন কমিশনের।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয় সূত্রে আওয়ামী লীগ থেকে সময় বৃদ্ধির আবেদনপত্র পাওয়ার কথা স্বীকার করে জানিয়েছে, এই ধরনের আবেদনে সময় বাড়ানোর নজির রয়েছে। নির্ধারিত সময় পার হওয়ার পর আবেদন ইসির কাছে উপস্থাপন করা হবে। সূত্রটি জানায়, গত বছরও আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ কয়েকটি দল সময় বাড়ানোর আবেদন জানালে তাতে নির্বাচন কমিশন সাড়া দেয়। এবার এখন পর্যন্ত নতুন নিবন্ধিত মুসলীম লীগ-বিএমএল ছাড়া আর কোন দল বার্ষিক হিসাব প্রতিবেদন জমা দেয়নি বলে ইসি কর্মকর্তারা জানান।

এদিকে রবিবার সকালে এ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাসের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক এ্যাডভোকেট এ বি এম রিয়াজুল কবির কাওছার ও আনোয়ার হোসেন নির্বাচন কমিশনে যান। সেখানে গিয়ে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বার্ষিক আয়-ব্যয়ের প্রতিবেদন জমা দিতে আরও এক মাসের সময় বাড়ানোর অনুরোধ জানিয়ে ইসি সচিবের কাছে একটি আবেদন জমা দেন। মৃণাল কান্তি দাস জানান, আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে মর্মে ইসির কাছে এক মাসের সময় চাওয়া হয়েছে।