২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিরোধপূর্ণ সাগরে দ্বিতীয় প্রমোদতরী চালু করবে চীন

চীনা কর্তৃপক্ষ দক্ষিণ চীন বিরোধপূর্ণ সাগরের প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জ অভিমুখে এক দ্বিতীয় জাহাজ চালুর পরিকল্পনা করছে। সোমবার রাষ্ট্রীয় মিডিয়ায় একথা বলা হয়। এ পদক্ষেপে ভিয়েতনাম বিক্ষুব্ধ হতে পারে। কারণ সেও এ দ্বীপপুঞ্জের মালিকানা দাবি করে থাকে। খবর ইয়াহু নিউজের।

চীন ২০১৩ দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ প্রদেশ হাইনান থেকে প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জ পর্যন্ত পরীক্ষামূলকভাবে প্রমোদতরী কোকোনাট প্রিন্সেসের চলাচলের বন্দোবস্ত করে। এ পর্যন্ত ১০ হাজারেরও বেশি পর্যটক জাহাজটিতে করে ভ্রমণে বেরোয়। সরকারী পত্রিকা ‘চায়না ডেইলি’ একথা জানায়। চলতি বছর শেষ হওয়ার আগেই দ্বিতীয় জাহাজটি চালু হবে বলে কর্মকর্তারা আশা করছেন। আরও কয়েকটি দ্বীপ পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হবে। ঐ পত্রিকায় একথা বলা হয়। ঐসব দ্বীপের মধ্যে রয়েছে উডি আইল্যাড। প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জের প্রশাসনিক দফতর ঐ দ্বীপে অবস্থিত। গত বছর প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জের কাছে চীন তেল উত্তলনের যন্ত্রপাতি মোতায়েন করলে ভিয়েতনামের সঙ্গে বিরোধ এবং চীন বিরোধী দাঙ্গা দেখা দেয়।

তাইওয়ান ও প্যারাসেল দ্বীপপুঞ্জ দাবি করে থাকে। চীন জ্বালানিসমৃদ্ধ দক্ষিণ চীন সাগরের শতকরা ৯০ ভাগ দাবি করে। ব্রুনেই, মালয়েশিয়া, ফিলিপিন্স, ভিয়েতনাম ও তাইওয়ান এ সাগরের কিছু কিছু অংশ দাবি করে।