২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চাপ নেই দক্ষিণ আফ্রিকার বললেন ডিন এলগার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট দল। তবু চট্টগ্রামের সিরিজের প্রথম টেস্টে স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে চাপেই ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। ম্যাচের তৃতীয় দিন পর্যন্ত এগিয়ে ছিল টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯ নম্বরে থাকা স্বাগতিক বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ হারের পর আবার টেস্টেও জিততে ব্যর্থ হলো প্রোটিয়া শিবির। কিন্তু সে জন্য দলের কেউ বাড়তি কোন চাপে নেই বলে দাবি করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ওপেনার ডিন এলগার। তিনি দাবি করেছেন যে কোন ম্যাচই সমান গুরুত্বের সঙ্গেই দেখে আফ্রিকা দল। ঢাকা টেস্টকেও একই গুরত্ব দিয়ে দেখছে ক্রিকেটাররা। সোমবার শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের ইনডোরে অনুশীলনে নামার আগে এসব কথা বলেন এ প্রোটিয়া ওপেনার।

সাগরিকা টেস্টে বাংলাদেশেরই ছিল নিয়ন্ত্রণ। মাত্র ২৪৮ রানে দক্ষিণ আফ্রিকাকে গুটিয়ে দেয়ার পর ৩২৬ রান করে বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে। ফলে প্রথম ইনিংসে ৭৮ রানে পিছিয়ে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বর দল হওয়ার পরেও এভাবে পিছিয়ে পড়ার কারণে বাড়তি একটা চাপ পড়েছিল প্রোটিয়া শিবিরে। এ বিষয়ে এলগার বলেন, ‘সত্যি বলতে কি আমরা বেশ চাপে ছিলাম। অল্প সময়ের ব্যবধানে দ্বিতীয় ও তৃতীয় উইকেট হারিয়ে আমরা চাপে পড়ি। সেই চাপটা আর কাটিয়ে উঠতে পারিনি আমরা। বাংলাদেশের বোলারদেরই কৃতিত্ব এটি।’ তবে ক্রিকেটে এমনটা হতেই পারে। যে কোন দল এগিয়ে যেতে পারে। কাজেই বাংলাদেশ লিড নিয়ে এগিয়ে থাকার কারণে অবাক কিংবা হতাশ কোনটিই হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকা দল। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এমনটা হতেই পারে। যে কেউ এগিয়ে যেতে পারে। এতে হতাশ হওয়ার কিছু দেখি না। বাংলাদেশ দল অনেক ভাল খেলছে সম্প্রতি। প্রথম টেস্টেও ভাল খেলেছে।’

দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য এখন চ্যালেঞ্জ সিরিজ জয়ের। সে জন্য মিরপুরে অনুষ্ঠিতব্য দ্বিতীয় টেস্টে জিততে হবে। কিন্তু সেটাকে বাঁচা-মরার লড়াই ভাবতে নারাজ এলগার। তিনি বলেন, ‘আমি দ্বিতীয় টেস্টকে ওভাবে দেখছি না। প্রতি টেস্ট ম্যাচই আমাদের কাছে সমান গুরুত্বপূর্ণ। প্রায় পাঁচ বছর ধরে আমরা এক নম্বর টেস্ট দল। প্রতি ম্যাচকে গুরুত্ব দিয়েই এগোতে হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে। সে জন্যই এখন পর্যন্ত আমরা বিশ্বের এক নম্বর দল আছি।’ ডিন এলগার চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৪৭ রান করেছিলেন। অল্পের জন্য অর্ধশতক পাননি। প্রথম ইনিংসে দল দ্রুতই গুটিয়ে গেলেও দ্বিতীয় ইনিংসে দারুণ শুরু ইঙ্গিত দিচ্ছিল দারুণ কিছুর। ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন এলগার। কিন্তু বৃষ্টির কারণে আর খেলাই হয়নি। নিজের ব্যাটিং নিয়ে এলগার বলেন, ‘৯ বছর ধরে ঘরোয়া লীগে ইনিংস উদ্বোধন করছি। আমি জানি, একজন ওপেনারের দায়িত্ব সম্পর্কে। সেটাই করার চেষ্টা করব। চট্টগ্রামের চেয়ে ভাল করার প্রচেষ্টা অবশ্যই থাকবে।’ উদ্বোধনীতে দারুণ সূচনা দেয়ার পর আবার বল হাতেও ম্যাজিক দেখিয়ে ছিলেন এলগার। তিন ওভার বল করে বাংলাদেশী ওপেনার তামিম ইকবালের উইকেট নেন এই অনিয়মিত স্পিনার। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সুযোগ হলে এবারও বোলিং করব। দলের প্রয়োজন হলে যখন দরকার হবে বোলিং করতে সমস্যা নেই।’