২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সর্দি কাশি থেকে মুক্তির সহজ উপায়

* প্রচুর ঘুমান। ৮ ঘণ্টা ঘুমাবেন রাতে।

* ভিটামিন খান। মাল্টিভিটামিন আপনার শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয়।

* প্রচুর পানি খান। পানি বেশি খেলে ভাইরাস চলে যায়।

* বেশি এ্যালকোহল পান করবেন না। এ্যালকোহল রোগ প্রতিরোধকে দুর্বল করে।

* স্ট্রেসে ভুগবেন না। তাহলে বেশি বেশি সর্দিকাশিতে আক্রান্ত হবেন।

মাথা যন্ত্রণার উপশম

স্ট্রেস ও মাথা যন্ত্রণা অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত। তাই ৭টি শিথিলকরণ পদ্ধতি মাথা যন্ত্রণার উপশম হতে পারে।

* ম্যাসেজ করুন, শিথিল হবে।

* জোরে জোরে শ্বাস নিন। যেন পুরো পেট ভরে যায় বাতাসে। তারপর আস্তে আস্তে ছাড়ুন।

* মনকে শান্ত করুন। কোন শান্ত স্নিগ্ধ পরিবেশের কথা ভাবুন। ভাবুন সমুদ্র পাড়ের কথা। আপনার মন এই যন্ত্রণা থেকে পরিত্রাণ পাবেন।

* গান শুনুন। সুন্দর সুরেলা স্নিগ্ধ গান শুনুন।

* ১০ মিনিট মাংসপেশী শিথিলকরণের ব্যায়াম করুন।

* যোগাসন করুন।

* প্রতিদিন ১ ঘণ্টা হাঁটুন।

মোশন সিকনেস বা ভ্রমণকালীন অসুস্থতা

* মোশন সিকনেস সাধারণত বাস, কার, জাহাজ বা উড়োজাহাজে যাত্রাকালীন অসুস্থতাকে বোঝায়।

* বমি বমি ভাব, বমি কিংবা মাথাঘোরা ভাব, ঘেমে যাওয়া ইত্যাদি প্রকাশ পেতে পারে।

* যাত্রাকালীন খাদ্য ও পানীয়র দিকে লক্ষ্য রাখুন। অতিরিক্ত ফ্যাটি খাদ্য ও মসলাযুক্ত খাদ্য পরিহার করুন। যে খাবার ও পানীয় খেলে আপনার খারাপ লাগে তা পরিহার করুন।

* অতি গন্ধযুক্ত খাদ্য পরিহার করুন।

* যে আসনে আপনার কম ঝাঁকুনি হয় সেরকম একটি আসন আপনার জন্যে বেছে নিন।

* কখনও যাত্রাপথের গতির বিপরীতে তাকাবেন না।

* গাড়ির সামনের আসনে বসুন

* পড়তে যাবেন না, যদি আপনার যাত্রাকালীন অসুস্থতার ইতিহাস থাকে।

* যখন নৌকা বা মোটর গাড়িতে ভ্রমণ করছেন, তখন আপনার দৃষ্টি নির্দিষ্ট রাখুন সামনের দিকে।

* খোলা বাতাসে বসুন সম্ভব হলে।

* যারা ভ্রমণ কালীন অসুস্থতায় ভুগে থাকেন, তাদের থেকে একুট দূরে থাকুন। কারণ তাদের অসুস্থতার কথা শুনলেও আপনি অসুস্থ হতে পারেন।

* সঙ্গে মেক্লেজিন জাতীয় বমির ওষুধ নিন আগে থেকে।