২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজশাহীতে বিএমডিএ অফিস ঘেরাও

  • পদোন্নতি দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ পদোন্নতিসহ বিভিন্ন দাবিতে রাজশাহীতে বরেন্দ্র বহমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) প্রধান কার্যালয় ঘেরাও ও বিক্ষোভ করেছে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। সোমবার বেলা ১১টার দিকে তারা ঘেরাওসহ সমাবেশ করেন। বিএমডিএর কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের ব্যানারে ওই কর্মসূচী পালন করা হয়। এ সময় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মসূচী চলাকালে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ এসে তা নিয়ন্ত্রণে নেয়।

বিএমডিএর কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক শামসুল হুদা জানান, শুরু থেকে এ প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা নিয়মিত পদোন্নতি পেয়েছেন। ‘টাইম স্কেল ও সিলেকশন গ্রেড’ পেয়েছেন। গৃহনির্মাণ ঋণও পেয়েছেন। কিন্তু চার বছর ধরে তাদের কারও পদোন্নতি হয়নি। কেউ টাইম স্কেল বা সিলেকশন গ্রেড এমনকি গৃহনির্মাণ ঋণও পাননি। এ নিয়ে তারা বিএমডিএ কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার স্মারকলিপিও দিয়েছে। বাধ্য হয়ে তারা মাঠে নেমেছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবার হুমকিও দিয়েছেন তিনি। পরিষদের সদস্যসচিব হাসানুল ইসলাম দাবি করেন, প্রতিষ্ঠানটি নিজস্ব অর্থায়নে চলে। সরকার থেকে কোন পয়সা নেয়া হয় না। সচিব প্রয়োজনে বিধি তৈরি করে তাদের সুযোগ-সুবিধা দেবেন। তা না হলে তারা চলে যাবেন।

তবে বিএমডিএ কোনমতেই স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান নয়, বলে দাবি করেছেন সচিব দেওয়ান আবদুস সামাদ। তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠানে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিভিন্ন প্রকল্পে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেয়েছেন। প্রকল্প শেষ, তাদের চাকরিও শেষ। যারা চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পান, তারা কখনোই সরকারের জাতীয় স্কেলে বেতন পান না। এতদিন তারা যেসব সুযোগ-সুবিধা পেয়েছেন, তা তারা অবৈধভাবে নিয়েছেন। তিনি দুর্নীতি দমন কমিশনের সঙ্গে এ নিয়ে আলাপ করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা হতে পারে বলেও আভাস দিয়েছেন তিনি।

বাউফলে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ৭৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল, ২৭ জুলাই ॥ বাউফলে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও ভাংচুরের ঘটনায় দুটি মামলা হয়েছে। এ মামলায় মোট ৭৬ জনকে আসামি করা হয়েছে। জানা গেছে, ২২ জুলাই বিকেলে উপজেলা জেলা আওয়ামী লীগের (চীফ হুইপ আ স ম ফিরোজ গ্রুপ) একটি পূর্বনির্ধারিত সমাবেশ শেষে নেতাকর্মীরা বাড়ি যাওয়ার পথে কুন্ডপট্টি এলাকায় অপর গ্রুপের (বাউফল পৌরসভার মেয়র জুয়েল গ্রুপ) অনুসারীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় মাহমুদ হাসান বাদী হয়ে ২৫ জুলাই রাতে অপর গ্রুপের ছাত্রলীগ সভাপতি সাইদুর রহমান হাসান, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ রাহাত জামসেদসহ যুবলীগের ৫৯ জন নেতাকর্মীকে আসামি করে বাউফল থানায় একটি মামলা করে। এ ঘটনার জের ধরে একই দিন রাতে হাসপাতাল রোড এলাকায় উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম সিপনের সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভাংচুর করে চীফ হুইপ অনুসারীরা। এ ঘটনায় সিপন ২৬ জুলাই রাতে উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল ও পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মোর্শেদসহ ১৭ জন ছাত্রলীগ ও যুব লীগের নেতাকর্মীদের আসামি করে বাউফল থানায় একটি মামলা করে।

রূপগঞ্জে পৌর মেয়রের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ২৭ জুলাই ॥ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌরসভার মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর অপসারণের দাবিতে স্থানীয় এলাকাবাসী মানববন্ধন করেছেন। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পৌর কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন হাজী মফিজ উদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, লায়ন আতিকুর রহমান, জাহাঙ্গীর আলম, আবুল হাসনাত হিরা, মেহেদী হাসান বাবেল, জহিরুল ইসলাম, সোহান মিয়া, হাবিবুর রহমান, ফিরোজ ভুঁইয়া, তাইজুদ্দিন মোল্লা, সালাউদ্দিন বাবু, সারোয়ার হোসেন রাসেল প্রমুখ।