১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দায়িত্বপ্রাপ্ত রাসিক মেয়রের প্রজ্ঞাপনে স্থগিতাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়রের সরকারী প্রজ্ঞাপনের ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এ সংক্রান্ত আদেশ সোমবার রাজশাহী নগর ভবনে পৌঁছেছে। রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আজাহার আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নির্বাহী কর্মকর্তা আজাহার আলী জানান, রবিবার তারা উচ্চ আদালতের এমন একটি আদেশের কথা বিভিন্ন মাধ্যমে শুনতে পান। তবে আদালতের ওই আদেশের কপি সোমবার তারা হাতে পেয়েছেন। দুপুরের মধ্যেই তা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে। সেখান থেকে পরবর্তী নির্দেশনা আসার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। জানা গেছে, উচ্চ আদালতের ওই আদেশে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়রের প্রজ্ঞাপনের ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে দায়িত্বপ্রাপ্ত মেয়রের প্রজ্ঞাপন কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানাতে চেয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সহকারী সচিব সরজ কুমার নাথকে কারণ দর্শনের নোটিস প্রদান করা হয়েছে। জবাব দিতে বলা হয়েছে আগামী ২ আগস্টের মধ্যে।

এর আগে গত ৫ জুলাই হাইকোর্টের বিচারপতি নায়মা হায়দার ও মোস্তফা জামান ইসলামের একটি দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এ আদেশের একই কপি রাজশাহী জেলা ও দায়রা জজ আদালত, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার, রাজশাহী জেলা প্রশাসক ও রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছেও পাঠানো হয়। এর আগে গত ৭ মে পুলিশ সদস্য সিদ্ধার্থ সরকার হত্যা ও নাশকতাসহ বিভিন্ন মামলায় পলাতক রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বিএনপি নেতা মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে বরখাস্ত করা হয়।

বৈরী আবহাওয়ায় পদ্মায় লঞ্চ স্পিডবোট দ্বিতীয় দিনের মতো বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ বৈরী আবহাওয়ায় পদ্মা উত্তাল হয়ে ওঠায় শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে যাত্রীবাহী লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল দ্বিতীয় দিনের মতো বন্ধ রয়েছে। সোমবার শিমুলিয়া ঘাট থেকে এসব ছোট নৌযান ছেড়ে যায়নি এবং কাওড়াকান্দি থেকেও ছেড়ে আসেনি। তবে ডাম্প ফেরিসহ সকল ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। ৩টি রোরোসহ সোমবার ১৪টি ফেরি দিয়ে পারাপার চলছে। লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় যাত্রীরা ফেরিতেই পারাপার হচ্ছে। তাই ফেরিতে ভিড় বেশি। শিমুলিয়ায় ২০টি বাস এবং ১শ’ ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। কাওড়াকান্দিতেও শতাধিক যান পারাপারের অপেক্ষায়। শিমুলিয়া নদী বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর তোফাজ্জল হোসেন জানান, বৈরী আবহাওয়ায় পদ্মা নদীর পানি উত্তাল ঢেউ ও তীব্র স্রোত দেখা দেয়। এতে দুর্ঘটনা এড়াতে উভয়ঘাট থেকে লঞ্চ, সিবোট, ট্রলারসহ ছোট নৌযানগুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা মানিকগঞ্জ থেকে জানান, বৈরী আবহাওয়ায় পদ্মা উত্তাল হওয়ায় সোমবার দুপর থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের ছোট বড় সবধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে ফেরি চলাচল অব্যাহত রয়েছে।

জানা গেছে, সকাল থেকেই বৈরী আবহাওয়া শুরু হয়। তবে দুপুরের দিকে এর তীব্রতা বৃদ্ধি পেলে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের ছোট-বড় সবধরনের লঞ্চ চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়।