১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত তিন ॥ আহত পাঁচ

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষক, ব্যবসায়ী ও বাসের হেলপার নিহত। আহত হয়েছে পাঁচজন। স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর-

মুন্সীগঞ্জ ॥ ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের শ্রীনগর উপজেলার দোগাছিতে বাসের ধাক্কায় অপর এক বাসের হেলপার নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৫ জন। পুলিশ ঘাতক বাসের চালককে আটক করেছে। সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

কিশোরগঞ্জ ॥ কিশোরগঞ্জের সাদুল্লারচর বড়ভাগে ট্রাক্টরচাপায় আলাউদ্দিন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধ ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনার পর উত্তেজিত জনতা ঘাতক ট্রাক্টরটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ সড়কে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার গুজাদিয়া টামনী গ্রামের বাসিন্দা ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আলাউদ্দিন ময়মনসিংহের নান্দাইলের জামতলা বাজারসংলগ্ন এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। রবিবার রাত ১০টার দিকে বাজারের পাশে মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে রাস্তায় বের হলে ট্রাক্টর তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

ভালুকা, ময়মনসিংহ ॥ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ভালুকা উপজেলার কাঁঠালী নামক স্থানে রবিবার রাতে বাসচাপায় আব্দুর রহিম (৪৫) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। জানা যায়, ঘটনার সময় দ্রুতগামী এনা পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো-ব-১৮-৫৩২১) ওই স্থানে রাস্তা পার হওয়ার সময় সৌদিয়া হোটেল এ্যান্ড রেস্টুরেন্টের মালিক কাঁঠালী গ্রামের রজব আলীর পুত্র আব্দুর রহিমকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ সময় উত্তেজিত জনতা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে।

নওগাঁয় উচ্ছেদ করতে বাড়িতে পেট্রোল ঢেলে আগুন

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ২৭ জুলাই ॥ নওগাঁর মান্দায় বসতভিটা থেকে একটি পরিবারকে উচ্ছেদ করতে রাতের অন্ধকারে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে বসতবাড়ি। অর্ধশতাধিক সন্ত্রাসীকে ভাড়ায় এনে প্রতিপক্ষ এমন নিষ্ঠুর ঘটনা ঘটিয়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। রবিবার দিনগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের সাতবাড়িয়া মোড়ের অদূরে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে ওই পরিবারের বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে দায়ের করা হয়েছে ৭টি মামলা। এসব মামলায় গ্রেফতার এড়াতে বাড়ির পুরুষ সদস্যরা আত্মগোপনে রয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে বাড়িটির দখল নিতে নিষ্ঠুরতম এমন ঘটনা ঘটিয়েছে প্রতিপক্ষরা। ঘটনার পর থেকে ওই পরিবারের নারী সদস্যরা চরম আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। স্থানীয়রা জানান, আকবর হোসেন দীর্ঘ ২০ বছর ধরে সাতবাড়িয়া মোড়ের দক্ষিণ পাশে বসতবাড়ি নির্মাণ করে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বসবাস করছেন। ওই সম্পত্তি সাতবাড়িয়া গ্রামের হবির উদ্দিন ও তার ভাইয়েরা নিজেদের বলে দাবি করায় আকবর হোসেনের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়। জমিটির দখল নিতে কয়েক দফা সেখানে হামলা করেন হবির উদ্দিন ও তার লোকজন।

সিলেটে ব্যবসায়ী ও প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট অফিস ॥ সোমবার ভোরে সিলেট নগরীর পাঠানটুলা গোয়াবাড়ি এলাকায় একই রাতে যুক্তরাজ্য প্রবাসী ও এক ব্যবসায়ীর বাসায় ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা আগ্নেয়াস্ত্রের মুখে দুই পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে নগদ লক্ষাধিক টাকা ও ২০ ভরি স্বর্ণ ও মূল্যবান জিনিসপত্র লুটে নিয়েছে।

জানা যায়, মোহনা সি ১৯ নম্বর বাসার যুক্তরাজ্য প্রবাসী মতছির আলীর বাসার রান্নাঘরের দরজার গ্রিল কেটে বাসা থেকে নগদ ৪০ হাজার টাকা, ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, ৪টি মোবাইল ফোনসেট ও ১টি ল্যাপটপ নিয়ে যায়। এরপর মোহনা সি ২৯/৩ নম্বর বাড়ির ব্যবসায়ী আবদুর রহিমের বাসায় হানা দেয় ডাকাতদল। সেখানেও অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে নগদ ৭৫ হাজার টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়।

বাউফলে প্রবাসীর বাড়িতে

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল থেকে জানান, উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের ফ্রান্স প্রবাসী ঝন্টু হাওলাদারের বাড়িতে এক দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। রবিবার রাত দুইটার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, ১০-১২ জনের মুখোশধারী ডাকাত আলমারি ভেঙ্গে ৮০ হাজার টাকা ও ৮ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে যায়।