২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শ্রীনগরে কুমারী মায়ের নবজাতকের পিতা অভিযোগে দশম শ্রেণীর ছাত্র আটক

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ শ্রীনগরে কুমারী মায়ের নবজাতকের পিতা অভিযোগে দশম শ্রেণীর ছাত্র মোঃ হাসানকে (১৭) আটক করেছে পুলিশ। সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী ঝুমা আক্তারের (১৪) অভিযোগে পুলিশ সোমবার মধ্যরাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। এর আগে এ কুমারী মা তিনদিনের কন্যাসন্তান কোলে নিয়ে সোমবার শ্রীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ করে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, শ্রীনগরের বাঘড়ার ছত্রভোগ গ্রামের দিনমজুর দাদন হাওলাদারের মেয়ে ঝুমা মধুরখোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। মামাত ভাই হাসানের সঙ্গে দুই বছর আগে প্রেমের সম্পর্ক হয় তার। বছরখানেক আগে থেকে হাসান বিয়ের প্রলোভন দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। হাসান জাহানাবাদের সালাম মোল্লার ছেলে এবং মোকসেদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র। হাসানের কাছ থেকে মেয়েকে দূরে রাখার জন্য ঝুমাকে তার পিতা বালাশুর শামসুন্নাহার মহিলা মাদ্রাসায় নিয়ে আসে। কিন্তু মাদ্রাসার প্রধানকে ম্যানেজ করে হাসান মাদ্রাসার ভেতরেই ঝুমার কক্ষে রাতযাপন করে। কিছুদিনের মধ্যেই ঝুমা গর্ভবতী হয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানির পর পারিবারিকভাবে হাসানকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়া হয়। ঝুমার সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টি হাসান অস্বীকার করায় হাসানের পরিবার বেঁকে বসে। তিনদিন আগে ঝুমা একটি কন্যাসন্তান প্রসব করে। সোমবার সে ওই কন্যাসন্তানের পিতৃ পরিচয় দাবি করে থানায় অভিযোগ দেয়।

শ্রীনগর থানার ওসি মুজিবুর রহমান সোমবার রাত বারোটায় জানান, মধ্যরাতে কথিত পিতাকে আটক করা হয়েছে। অভিযোগটি নিয়ে তদন্ত চলছে। যাচাইবাছাই শেষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।