২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাউফলে বাঁশের খুঁটিতে বিদ্যুতের তার ॥ দুর্ঘটনার শঙ্কা

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল, ২৮ জুলাই ॥ বাউফলের শহরতলী থেকে প্রত্যন্ত এলাকায় মাইলের পর মাইল অবৈধভাবে তার টেনে বিদ্যুত ব্যবহার করা হচ্ছে। বাঁশ ও গাছের খুঁটির সঙ্গে তার টানা হচ্ছে। তাই যে কোন সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়িতে সাইডলাইন নিয়ে এ বিদ্যুত ব্যবহার করা হচ্ছে। এক বাড়ি থেকে অন্য বাড়ির দূরত্ব এক-দেড় কিলোমিটার কিংবা তারও বেশি হবে। বাঁশ ও গাছের খুঁটির সঙ্গে তার টানা হয়েছে। তাও আবার এক তার। এই তার দিয়ে বিদ্যুত সঞ্চালন হয় (পজেটিভ তার)। যে বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগ নেয়া হয়, সেই বাড়িতে অপর একটি তার দিয়ে (নেগেটিভ তার) মাটির সঙ্গে আর্থিং করা হয়। এভাবে ঝুঁকি নিয়ে চলছে বিদ্যুত ব্যবহার। কেবল বাউফলের প্রত্যন্ত এলাকায়ই নয়, এভাবে অবৈধ সাইডলাইন নিয়ে বিদ্যুত ব্যবহার করা হচ্ছে পৌর শহর ও শহরতলী এলাকায়ও। নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, এ উপজেলায় দুই থেকে তিন হাজার ঘরে অবৈধভাবে তার টেনে বিদ্যুত ব্যবহার করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট অফিসে মাসোয়ারা দিয়ে (লাইনম্যান ও মিটার রিডার) অবৈধভাবে তার টেনে সাইডলাইন চালানো হচ্ছে। শুধু তাই নয়, মিটার সংযোগের বাইরে বিদ্যুতের সার্ভিসলাইন থেকে হুক ঝুলিয়ে বিদ্যুত ব্যবহার করা হচ্ছে।

জালালাবাদ গ্যাসে অবস্থান কর্মসূচী

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট অফিস ॥ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদোন্নতি, লোক নিয়োগ, বিদেশ ভ্রমণ ও মহা ব্যবস্থাপকের অনিয়মের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে জালালাবাদ গ্যাস এমপ্লয়ীজ ইউনিয়ন সিবিএর নেতাকর্মীরা গ্যাস ভবনের এমডির কার্যালয়ের সামনে মঙ্গলবার দুপুর ঘণ্টাব্যাপী অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে।

অবস্থান কর্মসূচী চলাকালে সিবিএর নেতারা অভিযোগ করেন, ১৫ বছর ধরে জালাবাদ গ্যাসে অস্থায়ী কর্মচারী কর্মকর্তারা স্থায়ী নিয়োগ পাচ্ছেন না। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদোন্নতি দীর্ঘদিন থেকে বন্ধ আছে।

শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি রুটে রো রো ফেরি চলাচল বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ নাব্য সঙ্কেটর কারণে শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি রুটে মঙ্গলবার বিকাল থেকে রো রো ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। চ্যানেলে পানি স্বল্পতার কারণে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য এই ফেরি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন কর্তৃপক্ষ। এসব তথ্য দিয়ে বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ম্যানেজার আব্দুল আলীম জানান, শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের পদ্মার লৌহজং টার্নিংয়ে চ্যানেলে মুখে বিশাল এলাকাজুড়ে একটি ডুবোচরের সৃষ্টি হয়েছে। যার ফলে নাব্য সঙ্কট সৃষ্টি হয়েছে। এ চ্যানেলে বর্তমানে পানির গভীরতা মাত্র ৬ ফুট। কিন্তু রো রো ফেরির জন্য গভীরতা প্রয়োজন অন্তত সাড়ে ৭ ফুট। তাই রো রো ফেরি সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। পানির গভীরতা বৃদ্ধি না পেলে এখানে রো রো ফেরি চালানো সম্ভব না। তবে এই রুটের মধ্যম ও ছোট আকারের ১৪টি ফেরি চলাচল করছে।