২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রেম করে পুত্রের বিয়ে মায়ের আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ ছেলে আরিফ হোসেন (২২) গোপনে প্রেম করে বিয়ে করায় মা আকলিমা বেগম (৪৫) গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার ভোরে নিজবাড়ির ঘরে তিনি আত্মহত্যা করেন। পুলিশ দরজা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। আকলিমা বেগম সদরের কচুকাটা ইউনিয়নের দোনদরী গ্রামের মৃত আমিনুর রহমানের স্ত্রী। এ ব্যাপারে সদর থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে বলে জানান নীলফামারী থানার ওসি শাহাজাহান পাশা।

স্থানীয়রা জানায়, ছেলে আরিফ হোসেন নীলফামারী সরকারী কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। বিধবা মায়ের বড় আশা ছিল ছেলেকে লেখা পড়া শিখিয়ে মানুষের মতো মানুষ করবে। কিন্তু মাকে না জানিয়ে গোপনে সে বিয়ে করে। এটি জানতে পেরে বিধবা মা সোমবার কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছিলেন। কচুকাটা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ বলেন ঘটনাটি মর্মান্তিক।

কমরেড মণি সিংহের ১১৪তম জন্মবার্ষিকী পালিত

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুর, (নেত্রকোনা), ২৮ জুলাই ॥ নেত্রকোনার দুর্গাপুরে কমরেড মণি সিংহ মেলা উদ্যাপন কমিটি আয়োজিত ব্রিটিশ বিরোধী সংগ্রামী, টঙ্ক আন্দোলনের মহানায়ক, মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রবাসী সরকারের উপদেষ্টা, মেহনতী মানুষের মুক্তি সংগ্রাম এবং সমাজতন্ত্রের মহান নেতা, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কমরেড মণি সিংহের ১১৪তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে মঙ্গলবার।

এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে স্থানীয় নৃ-তাত্ত্বিক আদিবাসী অডিটরিয়ামে কমরেড মণি সিংহ মেলা উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক বর্ষীয়ান নেতা দুর্গা প্রসাদ তেওয়ারীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ছবি বিশ্বাস, বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ এমদাদুল হক খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামাল হোসেন, বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র শম জয়নাল আবেদীন, কমরেড মণি সিংহের একমাত্র পুত্র সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা ডাঃ দিবালোক সিংহ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ হক, উপজেলা সিপিবি সভাপতি ডাঃ সোহরাব হোসেন, সম্পাদক আলকাছ উদ্দিন মীর প্রমুখ। আলোচনা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও কাঙ্গালি ভোজের আয়োজন করা হয়।

পাবনায় মদ্যপ স্বামী ॥ পরকীয়ায় অতিষ্ঠ স্ত্রীই হত্যার নায়ক

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা, ২৮ জুলাই ॥ মাদক সেবন ও স্বামীর পরকীয়ায় অতিষ্ঠ স্ত্রী মুন্নী খাতুন ৫০ হাজার টাকার চুক্তিতে ভাড়াটিয়া খুনী দিয়ে স্বামীকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ মুন্নীকে আটক করেছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পাবনা সদর থানার ওসি তদন্ত মুন্সি আবু কুদ্দুস জানিয়েছেন, গত ২১ জুলাই পাবনার চাটমোহর থানার কাঠগড়া ব্রিজের নিচ থেকে পাবনা শহরের ছাতিয়ানী এলাকার হাজী আবুল কাশেমের ছেলে মিঠুর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহত মিঠুর স্ত্রী মুন্নী বাদী হয়ে পাবনা সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকালে বেরিয়ে আসে লোমহর্ষক কাহিনী। এক পর্যায় পুলিশের সন্দেহ হয় এ হত্যাকা-ের সাথে মিঠুর স্ত্রী মুন্নী নিজেই জড়িত। এর ভিত্তিতে গত ২৬ জুলাই বিকেলে নিহত মিঠুর স্ত্রী মুন্নিকে আটক করে পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জানান, আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে মুন্নী স্বীকার করে এ হত্যাকা-ের সাথে তার জড়িত থাকার কথা। এর প্রেক্ষিতে নিহত মিঠুর মা ফাতেমা বেগম বাদী হয়ে মিঠুর স্ত্রী মুন্নী ও তার সহযোগী মাঠপাড়ার তোফাজ্জল হোসেন সরদারের ছেলে সুজন, মাধপুর হাটবাড়িয়ার মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে হোসেন আলী কসাইসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

নড়াইলে বৈদ্যুতিক পাখার আঘাতে গৃহবধূর মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, নড়াইল, ২৮ জুলাই ॥ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লাহুড়িয়া দীননাথপাড়ায় বৈদ্যুতিক পাখায় মাথা কেটে পারভীন খানম (৩০) নামে গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার রাত ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত পারভীন লাহুড়িয়া দীননাথপাড়ার জিল্লু মোল্যার স্ত্রী। জিল্লু জাহাজে চাকরি করেন এবং ঘটনার সময় তিনি কর্মস্থলে ছিলেন।

প্রতিবেশিরা জানান, সোমবার রাতের খাবার খেয়ে গৃহবধূ পারভীন দেড় বছরের ছেলে সন্তানকে নিয়ে বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিলেন। গভীর রাতে হঠাৎ করে বিছানা থেকে উঠে দাঁড়ালে পারভীনের মাথায় বৈদ্যুতিক পাখার আঘাতে তিনি লুটিয়ে পড়েন।