২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাকার রায়ে গণজাগরণ মঞ্চের সন্তোষ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে সাকা চৌধুরীর ফাসির রায় বহাল রাখার খবরে আনন্দ মিছিলের প্রস্তুতি নিয়েও তা বাতিল করেছে গণজাগরণ মঞ্চ। আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দেখিয়ে এই আনন্দ মিছিল বাতিলের ঘোষণা দেন গণজাগরণ মঞ্চের একাংশের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার। সাকা চৌধুরী রায় বহাল রাখার পর পরই সকাল ৯টায় শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে আনন্দ মিছিল করার প্রস্তুতি নেয় মঞ্চেরকর্মীরা। কিন্তু আদালত এ রায়ের কোন প্রতিক্রিয়া না দেখানোর নির্দেশ দেওয়ার পুলিশ তাদের আনন্দ মিছিল করতে বাধা দেয়। পরে ইমরান আনন্দ মিছিল বাতিল করেন।

ইমরান এইচ সরকার বলেন, “মাননীয় আদালত রায় দেওয়ার পর তার অবজারভেশনে বলেন যে রায়ের পর যাতে কোন ধরেন প্রতিক্রিয়ার দেখানো না হয়। সেকারনেই আমার আমাদের আনন্দ মিছিলটি বাতিল করলাম। কেন না আমরা শুরু থেকেই বলেছি আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। যেকোন আইনকে আমরা মাথা পেতে নিতে চাই।”

এ রায়কে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, সত্য ও সুন্দরের জয় হয়েছে। তিনি বলেন, এই রায়ের মাধ্যমে প্রমাণ হলো বাংলাদেশে কোনও যুদ্ধাপরাধীদের ঠাঁই হবে না। এই রায়ের জন্য চট্টগ্রামের মানুষ দীর্ঘকাল অপেক্ষা করেছিল।

এসময় তিনি জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ও সাকা চৌধুরীর ফাঁসি রায় দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি জানান। এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের রায় কাযকরের দাবিতে প্রতি শুক্রবার বিকাল ৪ টায় শাহবাগের প্রজ্নম চত্বর অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেন নিয়ে ইমরান এইচ সরকার।

এদিকে, সাকা রায় পুর্ণবহাল রাখা দাবিতে মঞ্চের অপরাংশের অন্যতম সংগঠক কামাল পাশা চৌধূরী নেতৃত্ব সকাল থেকে শাহবাগে অবস্থান নিয় মঞ্চের আরেক একাংশ। রায়ের প্রতিক্রিয়ার হিসেবে তিনি বলেন, এই রায় আমরা খুশি ও আনন্দিত। একই সঙ্গে সাকা চৌধুরী রায় দ্রুত কায়কর করার জন্য দাবি জানাই।