২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাতৃত্বকালীন ছুটি নিশ্চিত করতে হবে সব প্রতিষ্ঠানে ॥ স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সকল সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে মাতৃত্বকালীন ছুটি নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, অনেক প্রতিষ্ঠানে এখনও সঠিকভাবে মাতৃত্বকালীন ছুটি দেয়া হচ্ছে না। তাই সকল প্রতিষ্ঠানে বেতন-ভাতাসহ মাতৃত্বকালীন ছুটি নিশ্চিত করতে হবে। একই সঙ্গে সকল প্রতিষ্ঠানে ডে-কেয়ার সেন্টার খোলার আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী।

বুধবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সেমিনার কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান। বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ-২০১৫ উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। ১ আগস্ট থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত পালিত হবে বিশ্ব মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘কাজের মাঝে শিশু করবে মায়ের দুধপান, সবাই মিলে সবখানে করি সমাধান।’ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ডাঃ দীন মোঃ নূরুল হক, পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মহাপরিচালক মোঃ নূর হোসেন তালুকদার, জাতীয় পুষ্টি সেবার জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠান ও লাইন ডিরেক্টর (পরিচালক) ডাঃ মোঃ কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, কর্মক্ষেত্রসহ সর্বত্র মায়েরা যাতে তাদের শিশুকে বুকের দুধ পান করাতে পারেন সে বিষয়ে গুরুত্ব ও এ সম্পর্কিত নীতিমালা প্রণয়নে জোরদার করাই মাতৃদুগ্ধ সপ্তাহ উদ্যাপনের অন্যতম উদ্দেশ্য। ওয়ার্ল্ড ব্রেস্ট ফিডিং ট্রেন্ড ইনিশিয়েটিভ (ডবিউবিটিআই) পলিসি ও প্রোগ্রাম বিশ্লেষণ করে ব্রেস্ট ফিডিং-এর সার্বিক উন্নতি দেখা গেছে। এক্ষেত্রে বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশ বর্তমানে ভাল অবস্থানে (নীল রঙ) আছে। এবার প্রতিপাদ্যের সঙ্গে ৭টি বিষয়কে অন্তর্ভুক্তির কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী।

৯ বেসরকারী ভার্সিটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ

সংসদ রিপোর্টার ॥ দেশের ৯টি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদনহীন ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম চালাচ্ছে উল্লেখ করে ওই সব বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে বলেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটি সকল বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়কে দ্রুত নিজস্ব ক্যাম্পাস স্থাপন করতে তাগিদ দিয়েছে।

বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়েছে। সভাপতি অসুস্থ থাকায় এই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সদস্য মোঃ আব্দুল কুদ্দুস। বৈঠকে কমিটির সদস্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, জাহাঙ্গীর কবীর নানক, ছলিম উদ্দীন তরফদার, গোলাম মোস্তফা, এস এম আবুল কালাম আজাদ, মোহাম্মদ মামুনুর রশিদ ও সেলিনা আক্তার বানু এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে উত্থাপিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, অতীশ দীপংকর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সাউদার্ন ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, দি পিপলস ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (চট্টগ্রাম), ইবাইস ইউনিভার্সিটি ও আন্তর্জাতিক ইসলামিক ইউনিভার্সিটি (চট্টগ্রাম) উচ্চ আদালতের আদেশ নিয়ে অবৈধ ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম চালাচ্ছে।