১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নতুন মাইলফলকের সামনে সাকিব-স্টেইন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সাকিব আল হাসান ক্রমেই রেকর্ডের বরপুত্রে পরিণত হচ্ছেন। দেশের পক্ষে সব ধরনের ক্রিকেটেই একের পর এক অবিস্মরণীয় রেকর্ডের মালিক হয়ে যাচ্ছেন তিনি। সেসব রেকর্ড আবার বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসেই বিরল। এবার আরেকটি নতুন মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে বিশ্বসেরা টেস্ট অলরাউন্ডার সাকিব। চট্টগ্রাম টেস্টে ৪৭ রানের ইনিংস খেলে দেশের পক্ষে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে সব ফরমেট মিলিয়ে ৮ হাজার রানের মালিক হয়েছেন। এবার আজ থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শুরু হতে যাওয়া দ্বিতীয় টেস্টে সব ফরমেট মিলিয়ে ৪০০ উইকেট শিকারি হওয়ার পালা। সব ফরমেট মিলিয়ে একই সঙ্গে ৪০০ উইকেট ও ৮ হাজার রানের রেকর্ড আছেই ক্রিকেট ইতিহাসে ৫ ক্রিকেটারের। সে জন্য সাকিবকে আরও ৭ উইকেট পেতে হবে। তবে ৩ উইকেট নিতে পারলেই ১৫০ উইকেট শিকার হয়ে যাবে বাংলাদেশের পক্ষে এখন পর্যন্ত টেস্ট ক্রিকেটে সর্বাধিক উইকেটের মালিক সাকিবের। আর ৬ উইকেট নিলে মিরপুরে ৫০ উইকেট শিকারের মাইলফলকও ছোঁয়া হবে সাকিবের। দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার ডেল স্টেইনের সামনেও হাতছানি দিচ্ছে নতুন মাইলফলক। আর এক উইকেট পেলেই তিনি হয়ে যাবেন বিশ্বের ত্রয়োদশ ৪০০ টেস্ট উইকেটশিকারি বোলার। দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে শুধু সাবেক পেসার শন পোলকের টেস্টে ৪০০ উইকেট আছে। তবে সবার চেয়ে কম ৮০ টেস্ট খেলেই এ মাইল ফলক স্পর্শ করার পথে রয়েছেন বর্তমানে বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট বোলার ডেল স্টেইন। চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে তেমন প্রভাব খাটাতে পারেননি স্টেইন। তাকে বেশ ভালভাবেই মোকাবেলা করেছেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। সাগরিকা টেস্টের দ্বিতীয় দিনটা সে কারণেই উইকেটশূন্য থেকে কেটে গিয়েছিল স্টেইনের। অবশ্য তৃতীয় দিনেই তিনি স্বরূপে আবির্ভূত হয়ে ৩ উইকেট শিকার করেছিলেন। বৃষ্টির কারণে শেষ দু’দিন ভেসে যাওয়ার কারণে দ্বিতীয় ইনিংসে অবশ্য বোলিং করার সুযোগ পাননি। সে কারণে নতুন এক মাইলফলক স্পর্শের জন্য তাকে অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে। সেই অপেক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে মিরপুর টেস্টে। ১ উইকেট শিকার করতে পারলেই দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট ইতিহাসে পোলকের পর দ্বিতীয় বোলার হিসেবে টেস্টে ৪০০ উইকেটের মালিক হয়ে যাবেন তিনি। সাবেক পেসার পোলক ১০৮ টেস্টে ৪২১ উইকেট শিকার করেছেন। চার শ’ বা তারচেয়ে বেশি উইকেট টেস্টে পেয়েছেন এর আগে মাত্র ১২ বোলার। এর মধ্যে পেসারই ৮ জন। সর্বাধিক ১৩৩ ম্যাচে ৮০০ উইকেট নিয়ে সবার শীর্ষে আছেন শ্রীলঙ্কার সাবেক অফস্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন। সবমিলিয়ে ৫ বোলার ৪০০ ক্লাব পেরিয়ে ৫০০, ৬০০ বা তদুর্ধ উইকেটশিকারি ক্লাবে নাম লিখিয়েছেন। সেই হিসাবে বর্তমানে কেবল ৪০০ ক্লাবে রয়েছেন ৭ বোলার। স্টেইনের সামনে অপেক্ষা করছে অষ্টম বোলার হিসেবে এই ক্লাবে যোগ দেয়ার। চট্টগ্রাম টেস্টে ৩ উইকেট নেয়ার পর ৭৯ টেস্টে স্টেইনের উইকেট সংখ্যা বর্তমানে ৩৯৯। তবে অন্যদের চেয়ে এগিয়ে থাকবেন স্টেইন। তিনি এবার এক উইকেট নিতে পারলে সবচেয়ে কম ৮০ টেস্ট খেলেই ৪০০ উইকেট শিকারি ক্লাবে যোগ দেয়ার কৃতিত্ব দেখাবেন। স্টেইনের মাইল ফলক স্পর্শ না হোক এমনটাই কায়মনে চাইবে বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তরা।