২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এমএইচ৩৭০ এর ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার!

এমএইচ৩৭০ এর ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার!

অনলাইন ডেস্ক ॥ ফরাসী দ্বীপ লা রিউনিয়নে ভেসে এসেছে কোনো একটি প্লেনের ধ্বংসাবশেষ। উদ্ধার অংশের আকৃতি ও প্রকৃতি দেখে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, নিখোঁজ মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের প্লেন এমএইচ-৩৭০ এর ধ্বংসাবশেষ এটি।

তবে এ ব্যাপারে এখনও কোনো আনুষ্ঠানিক বিবৃতি আসেনি। বুধবার ভারত মহাসাগরের ফরাসী উপকূলে ভেসে আসা ওই অংশ পরীক্ষা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে হয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

২০১৪ সালের মার্চে ২৩৯ জন আরোহী নিয়ে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের প্লেন বোয়িং-৭৭৭ কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়। এরপর থেকে আজ পর্যন্ত এর কোনো আরোহীর বা অংশের সন্ধান মেলেনি।

ভেসে আসা অংশ বোয়িং-৭৭৭ এর পাখার অংশ বলেই মনে হচ্ছে বলে মন্তব্য বিশেষজ্ঞদের। উদ্ধার অংশের ছবির ভিত্তিতে মার্কিন এক কর্মকর্তা একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, যে অংশটি ফরাসী উপকূলে ভেসে এসেছে, তা কোনো বোয়িং-৭৭৭ প্লেনেরই। এই অংশকে বলা হয় ‘ফ্ল্যাপারন’। এধরনের অংশ বোয়িং-৭৭৭ সিরিজের প্লেনের পাখায় লাগানো থাকে।

এভিয়েশন বিশেষজ্ঞ জেভিয়ের তাইতেলম্যানও একই ধরণের মন্তব্য করেছেন। বোয়িং-৭৭৭ সিরিজের দুই পাখাতেই লাগানো থাকা ‘ফ্ল্যাপারন’ প্লেনের উড্ডয়ন ও আবর্তন নিয়ন্ত্রণ করে।

তবে ফরাসী বিশেষজ্ঞরা এ ব্যাপারে এখনই কোনো মন্তব্য করতে নারাজ। তাদের মতে, আরও পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরই এ বিষয়ে কথা বলা উচিত। ভারত মহাসাগরে যে অঞ্চলে এমএইচ-৩৭০ এর সন্ধান চালানো হচ্ছে, লা রিউনিয়ন তার থেকে অনেক দূরে। আর তাছাড়া এই দ্বীপের কাছে বেশ কয়েকটি প্লেন দুর্ঘটনারও শিকার হয়েছে আগে।

মালয়েশীয় কর্তৃপক্ষ উদ্ধার ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষার জন্য ফ্রান্সে একটি বিশেষজ্ঞ দল পাঠাচ্ছে বলে জানানো হয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে।

এমএইচ-৩৭০ এর অনুসন্ধানে নেতৃত্ব দেওয়া অস্ট্রেলীয় দল ও বিশেষজ্ঞরাও উদ্ধার ধ্বংশাবশেষের পরিচয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার অপেক্ষ করছেন। এক বিবৃতিতে অস্ট্রেলিয়ার ইনফ্রাস্ট্রাকচার-মন্ত্রী ওয়ারেন ট্রুস বলেছেন, যদি উদ্ধার ধ্বংশাবশেষ এমএইচ-৩৭০ এর হয়ে থাকে, তাহলে এই প্লেনের বাকি অংশও ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাঞ্চলের তলদেশেই আছে।

নির্বাচিত সংবাদ