১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গোপালগঞ্জে ভ্যান চালক হত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গোপালগঞ্জ॥ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় আনিচ কাজী (৩০) নামে এক ভ্যান-চালককে হত্যা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু ঘটে। এর আগে বুধবার গভীর রাতে টুঙ্গিপাড়া সদরের সাবু শেখের বাড়ির উত্তর পাশে ফাঁকা জায়গা থেকে হাত-পা বাঁধা মুমূর্ষু অবস্থায় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। নিহত আনিচ কাজী টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার কেড়াইলকুপা এলাকার আফসার উদ্দিন কাজীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি আনিচ কাজী নিজের একটি ব্যাটারী-চালিত ভ্যান ২০ হাজার টাকায় টুঙ্গীপাড়ার রফিকুল ইসলামের কাছে বিক্রী করে। ক্রেতা ১৬ হাজার টাকা নগদ পরিশোধ করলেও বাকী ৪ হাজার টাকা পরিশোধে নানা টালবাহনা করে আসছিল। বুধবার রাত ৯ টার দিকে আনিচ তার পাওনা টাকা চাইতে বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু পরবর্তীতে ফিরে আসতে দেরী হওয়ায় স্বজনরা তাকে খোঁজাখুজি শুরু করে। পরে তারা ওই স্থানে মুখে বিষ ও হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তাকে দেখতে পায়। এরপর তাকে উদ্ধার করে প্রথমে টুঙ্গিপাড়া হাসপাতালে ও পরে গোপালগঞ্জ ২৫০-শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থা ক্রমেই অবনতি হলে বৃহষ্পতিবার সকালে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়; কিন্তু পথে তার মৃত্যু ঘটে।

টুঙ্গীপাড়া থানার ওসি মোঃ মাহামুদুল হক জানিয়েছেন, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ভ্যান ক্রেতা রফিকুল ইসলামের বড় ভাই সাহিদুল ইসলামকে (৪০) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।