২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘কোমেন‘ মোকাবেলায় জেলা প্রশাসনের জরুরী সভা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী॥ ঘূর্ণিঝড় ‘কোমেন’ আতংকে পটুয়াখালীর উপকূলের মানুষ নির্ঘুম রাত কাটিয়েছে। সাগর তীরের মানুষগুলো নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে শুরু করে। তবে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার পর উপকূলবাসির মধ্যে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে ঘূর্ণিঝড়টি দূর্বল হওয়ার খবরে। এ দিকে থেমে থেমে এখনও বৃষ্টি ও দমকা হাওয়া বইছে। ঝড়ে গাছ চাপা পরে গলাচিপার কল্যান কলস গ্রামে নুর ইসলাম (৫২) নামের একজন মারা গেছে। এর পরে জেলা প্রশাসন জেলার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে আশ্রয় কেন্দ্র ঘোষণা করে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেছে। জেলা ও উপজেলা সদর গুলিতে পর্যপ্ত শুকনা খাবার মজুদ রাখা হয়েছে। জেলার অভ্যান্তরীন ও দুর পাল্লার সকল রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সম্ভাব্য যে কোন ধরনের দূর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে একাধীক মেডিকেল টিম, রেডক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবী গ্রুপ, ফায়ার সার্ভিস ডিফেন্সসহ প্রশাসন, জনপ্রতিনিসহ বিভিন্ন স্তরের লোকজন।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা দূর্যোগ ব্যবস্থা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় এসব তথ্য জানান ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো. নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন।