১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে সূচক বেড়েছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার মূল্য সূচকের উর্ধমুখী প্রবণতা দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। দিনটিতে দেশের উভয় বাজারেই সব ধরনের মূল্য সূচক বেড়েছে। তবে এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন কমলেও বেড়েছে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই)। শুরুতে চলতি অর্থবছরের আগামী ছয় মাসের জন্য মুদ্রানীতি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে বাজারে কিছুটা ধীর গতি দেখা দেয়। ফলে সূচকের ওঠানামা চলতে থাকে। দুপুরে মুদ্রানীতি ঘোষণার পরে বাজারে ইতিবাচক প্রবণতা ফিরে আসলেও লেনদেনের গতি বাড়েনি। সেই কারণে আগের দিনের চেয়ে প্রধান বাজারে লেনদেন কিছুটা কমেছে। এছাড়া দিনটিতে তালিকাভুক্ত বেশ কিছু কোম্পানির অর্ধবার্ষিক ও ১ম প্রান্তিকের প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এরও প্রভাব পড়েছে সংশ্লিষ্ট কোম্পানির দরে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ৬২৯ কোটি ৮৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের তুলনায় ৩৭ লাখ টাকা কম লেনদেন। আগের দিন এ বাজারে ৬৩০ কোটি ২৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছিল। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩১৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৬টির, কমেছে ১১৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১টির শেয়ার দর।

সকালে সূচকের নেতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১৪ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৭৯২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ১৮৯ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ১৪ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৮৮৩ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলো- লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, স্কয়ার ফার্মা, শাশা ডেনিমস, বেক্সিমকো ফার্মা, আইডিএলসি, বেক্সিমকো, অলিম্পিক এক্সেসরিজ লিমিটেড, গ্রামীণফোন, ফার কেমিক্যাল এবং ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : বিডি ফাইন্যান্স, জেমিনি সী ফুড, কাসেম ড্রাইসেল, নদার্ন জুটস, ন্যাশনাল টিউবস, জিপিএইচ ইস্পাত, আইডিএলসি, মিরাকল ইন্ড্রাস্টিজ, জেএমআই সিরিঞ্জ ও মিথুন নিটিং।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : বিডি ওয়েল্ডিং, বে-লিজিং, প্রাইম ফাইন্যান্স, আইসিবি ১ম এনআরবি, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স, সালভো কেমিক্যাল, পিপলস লিজিং, এসআইবিএল, ফার্স্ট ফাইন্যান্স ও আরএন স্পিনিং।

এদিকে দেশের অপর বাজারে সূচকের বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে লেনদেন বেড়েছে। দিনটিতে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৬১ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৮২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৭৩৫ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৪৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১২১টি কোম্পানির, দর কমেছে ৯৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টি কোম্পানির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : অলিম্পিক, গ্রামীণফোন, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, বেক্সিমকো ফার্মা, বেক্সিমকো, তসরিফা ইন্ড্রাস্টিজ, ইউনাইটেড এয়ার ও বিএসআরএম লিমিটেড।