২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফেনীর বন্যা পরিস্থিতি

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফেনী॥ ফেনীর সমুদ্র উপকুলীয় উপজেলা সোনাগাজীতে ঘুর্নিঝড় কোমেন এর কারনে স্বাভাবিকের চেয়ে ৩-৪ ফুট উঁচু জোয়ারের তোড়ে চরের প্রায় ৫ টি গ্রামের নি¤œাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ঘুর্নিঝড় কোমেনের কারনে বড় ধরনের কোন ক্ষয় ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুতফুর নাহার। শুক্রবার ভোর রাত থেকে ফেনীর কোথ্ওা গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি আবার কোথ্ওা রোদ দেখা গেছে।

ফেনীর ফুলগাজীর বন্য পরিস্থিতির সার্বিক উন্নতি হল্ও ফেনী সদর ও দাগনভুঞা উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হয়েছে। বন্যার পনি ধীরেধীরে নামতে শুরু করেছে। তবে ফেনী সদর ্ও দাগনভুঞা উপজেলার বন্যার পানির জলবদ্ধতার কারনে জনজীবনে দুর্ভোগ বেড়েছে। মুহুরী নদীর পানি সকাল ৯টায় টায় পরশুরাম পয়েন্টে বিপদ সীমার ১ মিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ।

পানিউন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রমজান আলী প্রামানিক জানান- ছোট ফেনী নদীর নোয়াখালী অংশের বিভিন্ন স্থানে স্থানিয়রা মাছ ধরার জন্য ছোট ছোট কয়েকটি বাঁধ দিয়ে ছিলো । সেই বাধ গুলি গুলি এখন পানির নিচে। তাই স¦াভাবিক গতিতে পানি নামতে পারছেনা। পানি সরতে বাধা প্রাপ্ত হচ্ছে। একই ভাবে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ এলাকায় নুতন নির্মিত মুছাপুর রেগুলেটরে একটি সেকশন কাজ করছেনা বিধায় পানি নামতে সময় লাগছে। বিষয়গুলি তিনি নোয়াখালীর নির্বাহী প্রকৌশলীর সাথে আলোচনা করেছেন। এ বিষয়ে দ্রুত কার্যকরী ব্যবস্থা নেবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন।