২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নওগাঁর পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহারে সেলাই প্রশিক্ষন

নওগাঁর পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহারে সেলাই প্রশিক্ষন

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ॥ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শেষ হলো নওগাঁর ঐতিহাসিক পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহারের যাদুঘরে আয়োজিত সাতদিন ব্যাপী সেলাই প্রশিক্ষন কর্মসূচীর। গত ২৪ জুলাই এই প্রশিক্ষন শুরু হয়। নওগাঁ জেলার বদলগাছী উপজেলার ঐতিহাসিক পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহারের যাদুঘরে ওই প্রশিক্ষন দেয়া হয়।

জানা গেছে, ঐতিহাসিক নওগাঁর পাহাড়পুর, বগুড়ার মহাস্থানগড়, বাগেরহাট ষাটগম্বুজ মসজিদ এবং দিনাজপুরের কান্তজির মন্দির এই ৪টি এলাকার ১২ জন কারুশিল্পী ৪ জন প্রশিক্ষকের অধিনে এই প্রশিক্ষন গ্রহন করেছেন। সাউথ এশিয়া ট্যুরিজম ইনফাষ্টট্রাকচারাল ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (এসএটিআইডিপি) শীর্ষক প্রকল্পের অধীনে ঐতিহ্য অন্বেষনের এই আয়োজনে সার্বিক সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রানালয় অধিনস্থ ও এশিয়া উন্নয়ন ব্যাংক।

সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানে পরিচালক ঐতিহ্য অন্বেষন ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কিওলোজি বিভাগের প্রফেসর সুফি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, প্রতœতাত্ত্বিক ঐতিহ্য সুরক্ষায় স্থানীয় জনগনের অংশগ্রহন খুবই গুরুত্বপূর্ন। অংশ গ্রহন অর্থবহ করতে হলে ইতিহাস ঐতিহ্য সচেতনতার পাশাপাশি তাদের অর্থনৈতিক সম্পৃক্ততা অবশম্ভাবি। বিশ্ব ঐতিহ্য পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার, ঐতিহাসিক ষাট গম্বুজ মসজিদ, মহাস্থানগড়, কান্তজির মন্দির বাংলাদেশের সমৃদ্ধ ঐতিহ্যের স্বাক্ষর বহন করে। ওই স্থানগুলো থেকে গবেষনার মাধ্যমে নির্বাচিত তাৎপর্যপূর্ণ রসদ নিয়ে বাংলার ঐতিহ্যবাহী সূচী-শিল্পের নক্সিকাঁথা, দেয়ালচাদর, হাতব্যাগ, সোফাকভার, প্রভৃতি তৈরী করা হচ্ছে। এ পণ্যগুলো দেশী পর্যটকদের চাহিদা পূরুনসহ আমাদের ঐতিহ্য দেশ বিদেশে প্রচার লাভ করবে।