২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ছিটমহলে জ্বালানো হবে ৬৮টি মোমবাতি ও দীপাবলী

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট ॥ আজ শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিট মধ্যরাতে ৬৮ বচর ধরে ঝুলে থাকা দু′দেশের ১৬২টি ছিটমহলের সমস্যার সমাধান হবে। চুক্তির অধিনে ছিটমহল হস্তান্তর এর মধ্য দিয়ে ৬৮ বছরের ছিটমহল সমস্যার ইতি ঘটবে। জ্বালানো হবে ৬৮টি করে মোমবাতি।

১ আগস্ট সূর্য ওঠার আগেই মুছে যাবে ছিটমহলের নাম। দু′দেশের মানচিত্রে একীভূত হয়ে যাবে এসব ভূখন্ড। শুরু হবে প্রশাসনিক কার্যক্রমসহ নানামুখী উন্নয়ন কর্মকান্ড। তাই এই দিনটিকে ঘিরে দু′দেশেই চলছে ব্যাপক আয়োজন। ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই হচ্ছে ছিটমহলে বসবাসকারী মানুষের একটি ঐতিহাসিক দিন। ১৯৭৪ সালে ইন্দিরা-মুজিব চুক্তির পর থেকে দু’দেশের ১৬২টি ছিটমহলের নাগরিকত্বহীন মানুষ নিজের পরিচয় আর একটি দেশের জন্য আন্দোলন সংগ্রাম করে আসছিলেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বেঁচে থাকতে ছিটমহল বিনিময় না হলেও বঙ্গবন্ধু কন্যা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছিটমহলের বন্দী মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির সাথে কূটনৈতিক সুসম্পকের কারণে স্থল সীমান্ত বিল বাস্তবায়ন হয়ে দীর্ঘ একটি সমস্যার সমাধান হচ্ছে। আর যে কারণে দু′দেশের ১৬২টি ছিটমহলে বসবাসকারী রাষ্ট্রহীন মানুষগুলো তাদের নাগরিক অধিকার ফিরে পাওয়ায় ৩১ জুলাই মধ্যরাতের পরই প্রতিটি ছিটমহলের মানুষ ঘর থেকে বেড়িয়ে পড়বে। রাতভর ছিটবাসীরা নেচে-গেয়ে উল্লাসে মেতে উঠবে। এই রাতটি হবে ছিটমহলবাসীর জন্য উৎসবের রাত।