২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুজাহিদ ও সাকার মৃত্যুদণ্ড দ্রুত কার্যকরের দাবিতে গণঅবস্থান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুদ্ধাপরাধী আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদ ও সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মৃত্যুদণ্ডের রায় দ্রুত কার্যকরের দাবিতে গণঅবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে গড়ে ওঠা সংগঠন গণজাগরণ মঞ্চ। পূর্বঘোষণা অনুযায়ী প্রবল বর্ষণের মধ্যেও শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরে গণঅবস্থান কর্মসূচী পালন করেন মঞ্চের নেতাকর্মীরা। শুক্রবার বিকেল চারটার কিছু পরে জাতীয় জাদুঘরের সামনে অবস্থান নিয়ে কর্মসূচী শুরু করেন তারা। এ সময় তারা যুদ্ধাপরাধী মুজাহিদ ও

সালাউদ্দিন কাদেরের মৃত্যুদণ্ডের রায় দ্রুত কার্যকর ও যুদ্ধাপরাধী সংগঠন জামায়াত-শিবির নিষিদ্ধের দাবিতে স্লোগান দেন। এরপর এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডাঃ ইমরান এইচ সরকার। গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র তার বক্তব্যে বলেন, ‘যত দ্রুত সম্ভব এই দুই কুখ্যাত মানবতাবিরোধী অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তির রায় কার্যকর করতে হবে। আমাদের আশঙ্কার জায়গাটি হলো, রায় কার্যকর প্রক্রিয়া যত দীর্ঘায়িত করা হবে, এই অপরাধীচক্র তাদের ষড়যন্ত্রের জাল তত বিস্তৃত করার সুযোগ পাবে। আমরা দেখেছি যুদ্ধাপরাধী মুজাহিদের চূড়ান্ত রায় ঘোষিত হওয়ার পর ইতোমধ্যেই দেড় মাসের অধিক সময় অতিক্রান্ত হয়েছে। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ রায়টি এখনও প্রকাশিত হয়নি। রায় কার্যকর প্রক্রিয়ার এ ধীরগতিতে আমরা হতাশা প্রকাশ করছি।

তিনি বলেন, আমরা আশা করছি খুব শীঘ্রই মুজাহিদ ও সালাউদ্দিন কাদেরের রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি প্রকাশিত হবে, যার মাধ্যমে রায় কার্যকরের প্রক্রিয়া সুগম হবে। তিনি আরও বলেন, ট্রাইব্যুনাল এবং আপীল বিভাগে যেসব যুদ্ধাপরাধীর অপরাধ ইতোমধ্যেই প্রমাণিত হয়েছে তাদের সমুদয় সম্পত্তি বাজেয়াফত করে রাষ্ট্রায়ত্ত করতে হবে। সকল দ-িত অপরাধীদের পরিবারের সদস্যদের গোয়েন্দা নজরদারির ভেতরে নিয়ে আসতে হবে। যাতে তারা কোন দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র না করতে পারে। গণজাগরণ মঞ্চ ও এর কর্মীদের নামে নানারকম অপপ্রচার চালিয়ে তাদের সম্মানহানি ও হেয়প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে জানিয়ে মুখপাত্র বলেন, অপপ্রচার ছড়িয়ে লাভ নেই। মুজাহিদ ও সাকার মৃত্যুদ- কার্যকরের আগ পর্যন্ত প্রতি শুক্রবার শাহবাগে গণঅবস্থান কর্মসূচী চলবে।

তিনি বলেন, গণজাগরণ মঞ্চ রাজপথে আছে। সর্বশেষ যুদ্ধাপরাধীর বিচারের রায় কার্যকরের আগ পর্যন্ত যত বাধাই আসুক না কেন গণজাগরণ মঞ্চ রাজপথেই থাকবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেই ঘরে ফিরব। সমাবেশে অন্যদের মধ্যে সঙ্গীতা ইমাম, ভাস্কর রাসা, জীবনানন্দ জয়ন্ত, খান আসাদুজ্জামান মাসুম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। উল্লেখ্য, আপীল বিভাগ কর্তৃক যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদেরের মৃত্যুদ-ের রায় প্রদানের দিনই মুজাহিদ ও সাকার রায় দ্রুত কার্যকরের দাবিতে এ কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচিত সংবাদ