২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মসজিদে খাদেম খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ॥ কেউ গ্রেফতার হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর অভিজাত এলাকা ধানম-ির একটি মসজিদের ভেতরেই মসজিদটির খাদেমকে খুন করা হয়েছে। মসজিদের পেশ ইমামের বিশ্রাম কক্ষে হত্যাকা-ের ঘটনাটি সংঘটিত হয়। মসজিদের ভেতরে ১৮ বছরের পুরনো খাদেম খুনের ঘটনা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের জন্ম দিয়েছে। লাশ উদ্ধারের সময় কক্ষের সিন্দুক ও আলমারি ভাঙ্গা ছিল বলে মামলার অভিযোগে উল্লেখ রয়েছে। চুরির সময় বাধা পেয়ে হত্যাকা-ের ঘটনাটি সংঘটিত হয় বলে পুলিশ ও মসজিদ সংশ্লিষ্টদের প্রাথমিক ধারণা। সন্ধ্যা সাতটায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। তবে বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে

এগারোটার দিকে ধানম-ি আবাসিক এলাকার ৬/এ নম্বর সড়কে অবস্থিত ধানম-ি ঈদগাহ মাঠ মসজিদের দ্বিতীয় তলার দক্ষিণ দিকে থাকা পেশ ইমামের বিশ্রাম কক্ষ থেকে মসজিদটির খাদেম দুলাল গাজীর (৫০) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, উদ্ধারকালে নিহতের গলায় মসজিদটির পেশ ইমামের ব্যবহার করা চেক গামছা গলায় পেঁচানো ছিল। আর নাক দিয়ে স্ক্রু ড্রাইভার ঢুকানো ছিল। নাকের রক্ত ফ্লোরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে। কক্ষের আলমারি ও সিন্দুক ভাঙ্গা ছিল। সিন্দুক থেকে দুই হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন খোয়া যায় বলে পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মনোয়ার হোসেনের দাবি।

পেশ ইমাম মসজিদের অদূরে ঝিগাতলায় বসবাস করেন। যে কক্ষে দুলাল গাজীকে হত্যা করা হয়, সেটি মুলত পেশ ইমামের বিশ্রামের কক্ষ। নামাজের আগে বা পরে পেশ ইমাম তার ইচ্ছানুযায়ী সেই কক্ষে বিশ্রাম নিয়ে থাকেন।

হত্যাকা-ের বিষয়ে মসজিদটির মোয়াজ্জিন মহিউদ্দিন (৬৬) ধানম-ি মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। তার পিতার নাম হাফেজ আব্দুল ওয়াহাব (মৃত)। বাদীর বাড়ি বরিশাল জেলারই বাবুগঞ্জ থানাধীন উত্তর বাহেরচর গ্রামে। মামলায় কাউকে আসামি করা হয়নি।

নির্বাচিত সংবাদ