২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

প্লাতিনির সমালোচনায় আলী

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবার মিশেল প্লাতিনির সমালোচনা করলেন প্রিন্স আলী বিন আল হুসেইন। জর্দানের এই যুবরাজের মতে ফুটবলের জন্য প্লাতিনি উপযুক্ত নন। তাই ফুটবল এবং সমর্থকদের জন্য তার চেয়েও আরও ভাল কাউকে প্রয়োজন। এ বিষয়ে বুধবার এক বিবৃতিতে বলেন, ‘ফিফার জন্য প্লাতিনি উপযুক্ত নন। ফুটবল এবং সমর্থকদের জন্য তার চেয়েও আরও ভাল কিছু যোগ্য।’

বিশ্বফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সভাপতির পদ থেকে সম্প্রতি সরে দাঁড়নোর ঘোষণা দেন সেøপ ব্লাটার। এরপর থেকেই প্রশ্ন উঠে কে হবে ফিফার পরবর্তী কা-ারি। তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই। অনেকে ব্লাটারের উত্তরসূরি হিসেবে প্লাতিনিকে মনে করে নিলেও তা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করছিলেন না উয়েফার সভাপতি। অবশেষে বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে ফিফার প্রার্থী হিসেবে নিজেকে ঘোষণা করলেন তিনি। এরপর থেকেই প্লাতিনির উপর ক্রুদ্ধ প্রিন্স আলী বিন আল হুসেইন। এর পেছনের কারণটা তো সবারই জানা। গত মে মাসে ফিফার সভাপতি নির্বাচনে সেøপ ব্লাটারের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছিলেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ব্লাটারের কাছে পরাজয় মানতে বাধ্য হন প্রিন্স আলী। তার মূল লক্ষ্য হচ্ছে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে ফিফার নির্বাচনে আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার। আর সেই লড়াইয়ে প্লাতিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলে স্বাভাবিকভাবেই এগিয়ে থাকবেন সভাপতির দৌড়ে। তাই প্লাতিনির সমালোচনায় নামলেন জর্দানের প্রিন্স।

ফিফায় গত কয়েক দশক ধরে এককভাবেই রাজত্ব করেছেন ব্লাটার। এই সময়ে দুর্নীতির আঁকড়ায় পরিণত হয়েছে ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। তাই ফিফার নেতৃত্বে এসে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিচ্ছেন প্রিন্স আলী। এ জন্য আসচ্ছে সপ্তাহে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসে আলোচনারও ইঙ্গিত দিলেন তিনি। এ বিষয়ে প্রিন্স আলীর অভিমত হলো, ‘প্রকৃতপক্ষে ফিফা দুর্নীতির আঁকড়ায় পরিণত হয়েছে।

আমরা অবশ্যই এই দুর্নীতি প্রতিরোধ করতে চাই। যেভাবেই হোক অন্ধকার জগতের কার্যক্রম এবং অপরাধপ্রবণতার অবসান করাটা এই জরুরী হয়ে পড়েছে। আমি মনে করি ফিফার অবশ্যই উচিত হবে ব্যক্তিগত কোন কণ্ঠস্বরকে প্রাধান্য দেয়া। আগামী সপ্তাহে আমি অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসে আলোচনা করতে চাই। আর তা অবশ্যই ফুটবলের স্বার্থে। এটা খুবই পরিষ্কার যে, ফিফায় নতুনত্ব আনাটা জরুরী। সেই সঙ্গে প্রয়োজন স্বাধীন নেতৃত্ব। যারা অতীতের সব কলঙ্ককে মুচে ফুটবলকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে পারবে।’

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সভাপতি থমাস বাখ মনে করেন কেবল নতুন সভাপতি ফিফার দুর্নীতিকে রুখতে পারবে না। বরং ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে সঠিকভাবে পরিচালিত করার জন্য নতুন আইন এবং অবকাঠামোগত সংস্কারও জরুরী। এ বিষয়ে এক সাক্ষাতকারে থমাস বাখ বলেন, ‘আসলে ফিফার নতুন সভাপতি এত সব সমস্যার সমাধান একা করতে পারবেন না। অবকাঠামোগতভাবে ফিফায় অনেক সংস্কার এবং আইন প্রণয়ন করাটা জরুরী।’