১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তিন ঘণ্টায় পৌঁছে দেবে সুপারসনিক জেট

নিউইয়র্ক থেকে লন্ডন ৩ ঘণ্টায় এমনই একটি সুপারসনিক বিলাসবহুল বিমান তৈরি করছেন একদল ইঞ্জিনিয়ার। যাদের মধ্যে রয়েছেন এক ভারতীয় বংশোদ্ভূতও। বোস্টনের স্পাইক এরোস্পেসের এস-৫১২ সুপারসনিক জেট ২০১৩-তেই চালু হয়েছিল। এবার ওই বিমানের নক্সা আরও উন্নত করার কথা ঘোষণা করছে কোম্পানি। নয়া নক্সা এই সুপারফাস্ট বিমানকে আরও দ্রুতগামী করতে পারে বলে কোম্পানি জানিয়েছে। এস-৫১২-র গতি বেড়ে হতে পারে ঘণ্টায় ২,২০৫ কিলোমিটার। শব্দের গতির তুলনায় তা ১.৮ গুণ বেশি। আর এই গতিতে চললে যাত্রীরা তিন ঘণ্টায় নিউইয়র্ক থেকে লন্ডনে পৌঁছে যেতে পারে। কোম্পানির দাবি, যাত্রীরা প্যারিস থেকে দুবাইতে গিয়ে কেনাকেটা ও বিনোদন সেরে ফিরে এসে রাতের খাবার খেতে পারবেন। স্পাইক এরোস্পেসের বাঙালী ইঞ্জিনিয়ার অনুতোষ মৈত্র বিমানটি আরও উন্নত করার কাজের সঙ্গে যুক্ত। তিনি জানিয়েছেন, এস-৫১২ নতুন করে গড়ে তোলা ডেল্টা উইংসই বিমানের গতি বৃদ্ধির অন্যতম উৎস। তিনি জানিয়েছেন, বিমানের ডেল্টা উইঙ্গস বিমানের উড়নোর বিষয়ে কার্যকারিতা বৃদ্ধিতে সহায়ক। জেটের উইঙ্গস এবং সেই সঙ্গে এর উন্নতমানের টেল বাতাসের বাধা কমাতে সাহায্য করবে। বাতাসের বাধার কারণে বিমানের গতি কমে এবং তা জ্বালানির খরচও বাড়িয়ে দেয়। অনুতোষ আরও জানিয়েছেন, নতুন টেল বিমানটিকে হাল্কাও করবে, যা গতি বাড়ানোর ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। স্পাইক এরোস্পেসের সিইও এবং প্রেসিডেন্ট ভিক কাচোরিয়া বলেছেন, আগামী দিনে এ ধরনের বিমানই বিমান পরিবহনের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নেবে। সূত্র : এবিপি