২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে সীমিত আকারে চলছে ফেরি

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ বৈরি আবহাওয়ার কারণে শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই লঞ্চ ও স্পীডবোট চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। তবে ফেরি চলাচল করছে সীমিত আকারে।

এর আগে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘কোমনে’ উপকূলরে দিকে এগেিয় আসার খবরে বৃহস্পতিবার সকালে এই রুটে লঞ্চ, স্পীডবোট, ট্রলার জাতীয় নৌ-যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শুক্রবার লঞ্চ ও স্পীড বোট চললেও শনিবার থেকে আবার তা বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। এসব তথ্য দিয়ে মাওয়া ফাঁড়ির ইনচার্য এসআই মো ইউনুস জানান, প্রচন্ড বাতাস এবং পদ্মা উত্তাল থাকায় লঞ্চ, স্পীবোট, ট্রলারসহ ছোটখাট নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। সতর্কতার জন্যই এসব নৌযান বন্ধ রাখা হয়েছে। আবহাওয়া ভালো হলে আবার এসব নৌযান চলাচল শুরু করা হবে। শিমুলিয়া প্রান্তে এখনও প্রায় ২শ’ গাড়ি পারাপারের অপেক্ষায় আছে।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়াস্থ সহকারী মহাব্যবস্থাপক(এজিএম) এসএম আশিকুজ্জামান জানান, পদ্মায় প্রচন্ড রোলিং থাকায় ফেরি চলাচলে মারাত্মক প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়েছে। ছোট ও মধ্যম আকৃতির ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। মাত্র চারটি রো রো ফেরি দিয়ে সীমিত আকারে ফেরি চলাচল সচল রাখা হয়েছে। এ অবস্থায় রাতে ফেরি চালানো দূরহ হয়ে পড়বে। অবস্থা এরকম থাকলে রাতে ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হবে।

দেশের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার শিমুলিয়ায় বৈরি আবহাওয়ার কারণে গত কয়েকদিন ধরেই এই বিপত্তি দেখা দিয়েছে। ফলে জনগনকে বিপাকে পড়তে হচ্ছে। শনিবার লঞ্চ, স্পীডবোট ও ট্রলার না থাকায় যাত্রীরা ফেরি করেই পদ্মা পার হয়েছে। তবে ফেরির সংখ্যা সীমিত থাকায় ফেরিগুলোতে উপচে পড়া যাত্রী ছিল। কম সংখ্যর ফেরি কারণে যানবাহন পারাপারেও প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হওয়ায় ঘাটে দেখা দেয় যানজট। এতে যাত্রী দুর্ভোগ চড়ম আকার ধারণ করে।