২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাফ ফুটবলের ড্র ॥ বাংলাদেশের গ্রুপে ভারত ও শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী ৯-১৮ আগস্ট পর্যন্ত সিলেটের সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে ‘সাফ অনুর্ধ-১৬ চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৫’-এর খেলা অনুষ্ঠিত হবে। এই টুর্নামেন্টে স্বাগতিক বাংলাদেশসহ ভারত, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মালদ্বীপ ও আফগানিস্তান অ-১৬ জাতীয় ফুটবল দল অংশগ্রহণ করবে। অংশ নেয়ার কথা থাকলেও পরে টুর্নামেন্ট থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয় ভুটান ও পাকিস্তান।

টুর্নামেন্ট উপলক্ষে শনিবার বিকেলে এ চ্যাম্পিয়নশিপের ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত হয়। ড্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন টুর্নামেন্ট কমিটির সদস্য সচিব সত্যজিত দাস রূপু। ড্র অনুযায়ী ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদশের সঙ্গী হয়েছে ভারত এবং শ্রীলঙ্কা। ‘বি’ গ্রুপে রয়েছে মালদ্বীপ, আফগানিস্তান এবং নেপাল। গতবারের সেমিফাইনালিস্ট ৪ দল ও এর বাইরের দুই দলকে আলাদাভাবে রেখে ড্র অনুষ্ঠিত হয়। পরে সেমিফাইনালের বাইরে থাকা দুই দলের মধ্যে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ ও আফগানিস্তানের ‘বি’ গ্রুপে জায়গা হয়। বি গ্রুপে এ ছাড়াও রয়েছে দুই শক্তিশালী দল বর্তমান রানার্সআপ নেপাল ও মালদ্বীপ। টুর্নামেন্টের খেলার তারিখ ও সময় পরে জানিয়ে দেয়া হবে।

টুর্নামেন্টের ড্র অনুষ্ঠানে অংশ নেন দেশের সাবেক তারকা ফুটবলার শেখ মোঃ আসলাম, আরিফ হোসেন মুন, ইমতিয়াজ সুলতান জনি, হাসানুজ্জামান খান বাবুলসহ আরও অনেকে। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ এবং সিলেট জেলা ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাহিউদ্দিন সেলিম ও টুর্নামেন্ট কমিটির সমন্বয়ক ফজলুর রহমান বাবু।

স্বাগতিক দল ছাড়া টুর্নামেন্টে অংশ গ্রহণকারী প্রতিটি দলকে পার্টিশিপেশন মানি হিসেবে দেয়া হবে ৫ হাজার ডলার। আর স্বাগতিক বাংলাদেশ পাবে ৫০ হাজার ডলার পার্টিশিপেশন মানি।

প্রথমে কক্সবাজার ও সিলেট ভেন্যুতে হওয়ার কথা থাকলেও ফ্লাডলাইট না থাকার কারণে শুধুমাত্র সিলেটে (সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে) অনুষ্ঠিত হবে এই টুর্নামেন্ট। যেহেতু কক্সবাজার জেলা স্টেডিয়ামে ফ্লাডলাইটের সুবিধা নেই, তাই সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টটি।

২০১১ সালে নেপালের কাঠমান্ডুতে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো এ টুর্নামেন্টের প্রথম আসর। সে আসরে ৬ দলের মধ্যে চতুর্থ হয়েছিল বাংলাদেশ। পরের আসরেও স্বাগতিক ছিল নেপাল। সেবার সাত দলের মধ্যে তৃতীয় হয়েছিল বাংলাদেশের কিশোররা।