২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্লাটারের প্রতি পুতিনের মহানুভবতা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিফা সদস্যদের কেলেঙ্কারির দায়ে সেপ ব্লাটার সভাপতির পদ ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিতে বাধ্য হয়েছেন। আর এই কঠিন সময়ে সবাই বিপক্ষে থাকলেও ব্লাটার পাশে পান রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনকে। শুধু পাশে বললে কমই বলা হবে, কেননা ব্লাটারের প্রতি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের মহানুভবতা অনেক। তার বিশ্বাস, সেপ ব্লাটার ফিফা কেলেঙ্কারির সঙ্গে জড়িত নন। তিনি শুধু নির্দোষই নন, এই সুইস ভদ্রলোকের নোবেল পুরস্কার পাওয়া উচিত বলেও মনে করেন তিনি।

ভøাদিমির পুতিনের দেশ রাশিয়া আগামী ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের আয়োজক। ফিফা কেলেঙ্কারির দায়ে ব্লাটার চতুর্দিক থেকে সমালোচিত হলেও তার প্রতি যথেষ্ট সম্মান দেখিছেন পুতিন। সোমবার সুইজারল্যান্ডের একটি চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে পুতিন বলেন, ‘আমরা সবাই জানি, মিস্টার ব্লাটারের অধীনে সব পরিস্থিতির উন্নতি হয়ে যাচ্ছে। আমি বিস্তারিত বলতে চাই না। তবে তিনি দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত, আমি এমনটা কখনও বিশ্বাস করি না।’ সেপ ব্লাটার এবং ভøাদিমির পুতিন বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ড্র অনুষ্ঠানের সময় শনিবার একে অন্যের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। এ সময় তিনি ব্লাটারের নোবেল পুরস্কার পাওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন, ‘আমি মনে করি ব্লাটার বা আন্তর্জাতিক ক্রীড়া ফেডারেশনের বড় বড় কর্তা অথবা অলিম্পিক গেমসের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিশেষ স্বীকৃতি পাওয়া উচিত। যদি কেউ নোবেল পুরস্কার পাওয়ার যোগ্যতা রাখেন, তবে এদেরই তা পাওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।’

বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার কেলেঙ্করির ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার পর নোবেল শান্তি কমিটি গত মাসে ফিফার সঙ্গে যৌথ ফেয়ার-প্লে­ কর্মসূচী ‘শান্তির জন্য করমর্দন’ বাতিল করার ঘোষণা দেয়। ফিফার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের দুর্নীতির দায় মাথায় নিয়ে চলতি বছরের জুনে ফিফা সভাপতির পদ ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দেন ব্লাটার। ঘোষণা অনুযায়ী, আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে নতুন কারও হাতে ফিফা সভাপতির দায়িত্ব দিয়ে পদত্যাগ করবেন তিনি। তবে ব্লাটার কোন ধরনের দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার কথা বার বার অস্বীকার করেন। পুতিন অভিযোগ করেন, রাশিয়া ও কাতারের কাছ থেকে বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব কেড়ে নিয়ে নিজেরা বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব নেয়ার জন্যই যুক্তরাষ্ট্র দুর্নীতির নাটক সাজিয়েছে।