১৯ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইনজুরিতে ছিটকে গেলেন এ্যান্ডারসন

  • ইংল্যান্ড দলে ফুটিট, ফিরলেন প্লাঙ্কেট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তৃতীয় টেস্টে দারুণ এক জয় পেয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে অস্ট্রেলিয়াকে বিধ্বস্ত করে সিরিজে এগিয়ে গেছে তারা ২-১ ব্যবধানে। যদিও ব্যাটিং পারফর্মেন্সে ইংলিশরাও দেখিয়েছে ব্যর্থতা। সে কারণে দুটি পরিবর্তন এনেছে তারা চতুর্থ টেস্টের জন্য। সাইড স্ট্র্রেইনের জন্য দারুণ বোলিং করা পেসার জেমস এ্যান্ডারসন ছিটকে গেছেন। ১৪ সদস্যের দলে আবার ঠাঁই করে নিয়েছেন বাঁহাতি পেসার মার্ক ফুটিট ও লিয়াম প্লাঙ্কেট। প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন ফুটিট এবং প্রায় এক বছর পর ফিরেছেন প্লাঙ্কেট। আগামী বৃহস্পতিবার ট্রেন্টব্রিজে এ্যাশেজের চতুর্থ টেস্ট শুরু হবে।

এ্যাশেজ উপলক্ষে এবার স্পেনে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করেছিল ইংল্যান্ড দল। নতুন কোচ ট্রেভর বেলিসের অধীনে সেই ক্যাম্পে ছিলেন ফুটিট ও প্লাঙ্কেট। দু’জনকেই নেটে বোলিং করানো হয়েছিল সেই অনুশীলনে। অবশেষে ফুটিট টেস্ট দলে ঠাঁই করে নিলেন। ২৯ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার ৬৮ প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলে ২৪৮ উইকেট নিয়েছেন। অপরদিকে, এক বছরেরও বেশি সময় দলের বাইরে ছিলেন প্লাঙ্কেট। তাঁর পরিবর্তে দলে জায়গা করে নেয়া স্টিভেন ফিন নিজেকে থিতু করে ফেলেছেন স্কোয়াডে। এবার এ্যান্ডারসনের ইনজুরি আবারও সুযোগ করে দিল তাঁকে। তবে এবার কাউন্টি আসরে সর্বাধিক উইকেটশিকারি ক্রিস রাশওয়ার্থ ডাক পেলেন না। কারণ মূলত গতির দিক বিবেচনা করে ফুটিটকে নেয়া হয়েছে। তাছাড়া নটিংহ্যামশায়ারের হয়ে খেলেছেন তিনি। সে কারণে চতুর্থ টেস্টে ফুটিটের অভিজ্ঞতা কার্যকর হতে পারে ইংল্যান্ডের জন্য। তবে প্লাঙ্কেট এবার মৌসুমে মাত্র দুই ম্যাচ খেলেছেন। অপরদিকে, মার্ক উড এ টেস্টেও থাকছেন। বার বার ইনজুরি এ পেসারকে আঘাত হেনেছে। গোঁড়ালির সমস্যা থাকায় এজবাস্টনে গত টেস্ট খেলতে পারেননি। কিন্তু যে চারটি টেস্ট খেলেছেন তাতে নিজের কার্যকারিতা প্রমাণ করেছেন। ট্রেন্টব্রিজেও তাঁর রেকর্ডটা বেশ ভাল। ডারহামের হয়ে মাত্র তিন ম্যাচ খেলে ২২.৫৩ গড়ে ১৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। তবে এরপরও এ্যান্ডারসনের অভাব কাটিয়ে ওঠা বেশ কঠিন হবে ইংলিশদের জন্য। কারণ ট্রেন্টব্রিজে ১৯.২৪ গড়ে তিনি ৫৩ উইকেট শিকার করেছেন।

তবে এডাম লিথকে দলে রেখে দেয়াটা একটু আশ্চর্যের। কারণ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এ ওপেনারের রেকর্ডটা খুবই বাজে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাঁর ব্যাটিং গড় মাত্র ১২.০০ অথচ ইংল্যান্ডের সঙ্গে নিয়মিত ইনিংস উদ্বোধন করা ফর্মে থাকা এ্যালেক্স হেলসকে বিবেচনা করেনি ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। এছাড়াও ব্যাট হাতে দারুণ নৈপুণ্য দেখানো তরুণ মার্ক স্টোনম্যানও সুযোগ পাননি। সে কারণে চলতি গ্রীষ্মের শুরুতে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে শতক হাঁকানো লিথ আরেকটি সুযোগ পেলেন। ইংল্যান্ডের জাতীয় নির্বাচক জেমস হুইটেকার বলেন, ‘জেমস এ্যান্ডারসনকে ছাড়া এবং মার্ক উডের সাম্প্রতিক চাপের কথা মাথায় রেখে অতিরিক্ত বোলার হিসেবে প্লাঙ্কেট ও ফুটিটকে নেয়া হয়েছে। এই মুহূর্তে উডের ফিটনেস রিপোর্ট ইতিবাচক, আশা করা যাচ্ছে বৃহস্পতিবার থেকে তাঁকে আমরা খেলার জন্য পরিপূর্ণ ফিট হিসেবেই পাব। এবার এজবাস্টনে দলের পারফর্মেন্স অনুপ্রেরণার ছিল এবং আশা করছি এ দলটি নিয়ে সেই অনুপ্রেরণা ট্রেন্টব্রিজে কাজে লাগাতে পারবে ইংল্যান্ড।’

চতুর্থ টেস্টে ইংল্যান্ড দল ॥ এ্যালিস্টার কুক (অধিনায়ক), মঈন আলী, জোনাথন ট্রট, জোনাথন বেয়ারস্টো, ইয়ান বেল, স্টুয়ার্ট ব্রড, জস বাটলার (উইকেটরক্ষক), স্টিভেন ফিন, মার্ক ফুটিট, এডাম লিথ, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ, জো রুট, বেন স্টোকস ও মার্ক উড।

নির্বাচিত সংবাদ