২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লং জাম্প ও ব্যাডমিন্টনে বাংলাদেশের স্বর্ণ জয়

  • স্পেশাল অলিম্পিকস্

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ যুক্তরাষ্ট্রের লস এ্যাঞ্জেলসে চলমান ‘স্পেশাল অলিম্পিকস্ সামার ওয়ার্ল্ড গেমস’-এ (চলবে ২ আগস্ট পর্যন্ত) বাংলাদেশের ৮০ সদস্যের দল এ্যাথলেটিক্স, সাঁতার, বোচি, ব্যাডমিন্টন, ফুটবল ও টেবিল টেনিস ইভেন্টে অংশ নিচ্ছে। গত শুক্রবার এ্যাথলেটিক্সের লং জাম্পে ১ স্বর্ণ, ১ রৌপ্য, ১ ব্রোঞ্জ; ব্যাডমিন্টনে দ্বৈতে ১ স্বর্ণ এবং মহিলা সাঁতারে ১ তাম্রপদক লাভ করে বাংলাদেশ। মহিলাদের লং জাম্পে স্বর্ণপদক লাভ করেন স্বর্ণালী আক্তার সুইটি। এছাড়া চৈতী আক্তার রৌপ্য এবং কানিজ ফাতেমা পান তাম্রপদক। ব্যাডমিন্টনের দ্বৈতে আবদুল কাদের শরণ এবং রেজওয়ানুল হক জুটি স্বর্ণপদক লাভ করেন। মহিলাদের ২৫ মিটার ফ্রি স্টাইল সাঁতার ইভেন্টে তাম্রপদক করায়ত্ত করেন মাহমুদা আক্তার।

বৃষ্টিতে ফের পরিত্যক্ত রাসেল-ফরাশগঞ্জ ম্যাচ

তুলকালাম-লীগ বর্জনের হুমকি ফরাশগঞ্জের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘মান্যবর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ’ ফুটবলে শুক্রবার শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড বনাম ফরাশগঞ্জের মধ্যকার ম্যাচটি ভারি বর্ষণের জন্য স্থগিত করা হয়েছিল। ফলে ম্যাচটি শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এবারও সেই ম্যাচে বাগড়া দিয়েছে ‘হতচ্ছাড়া’ বৃষ্টি! সকাল থেকেই মুষলধারায় বৃষ্টির কারণে শুক্রবারের মতো শনিবারও ম্যাচটি স্থগিত করা হয়েছে। ম্যাচ কমিশনার ফাইজুল ইসলাম আরিজ মাঠ খেলার অনুপযোগী ঘোষণা করে খেলাটি স্থগিত করেন। ১৬ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তিন নম্বরে শেখ রাসেল। ১৬ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে অবস্থান করছে ফরাশগঞ্জ। এদিকে এই ম্যাচ নিয়ে তুলকালাম কা- হয়েছে। চারটার ম্যাচ সোয়া ছয়টায় অনুষ্ঠিত হবে বলে খেলোয়াড়দের মাঠে নামিয়েও আবারও ম্যাচ স্থগিত করেন ম্যাচ কমিশনার আরিজÑ এমনটাই দাবি ফরাশগঞ্জের ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান সেলিম খান এবং ক্লাবটির অফিসিয়ালদের। ‘কদিন আগেই এর চেয়েও খারাপ মাঠে হয়েছে শেখ জামাল-শেখ রাসেল ম্যাচ। শুধু ছোট দলগুলোর জন্যই এমন নিয়ম! প্রথমে বলা হয় সাড়ে চারটায় হবে ম্যাচ। পরবর্তীতে বলা হয় সোয়া ছয়টায় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ছেলেরা তৈরি হয়ে মাঠে এসে অনেকক্ষণ ধরে অপেক্ষা করেছে। পরে ম্যাচ কমিশনার বলেন ম্যাচ হবে না!’ লীগ কমিটির ডেপুটি চেয়ারম্যানই আমাদের খেলার নির্দেশ দিয়েছিলেন। মূলত বড় দলের চাপের মুখে পড়েই ম্যাচ কমিশনার ম্যাচ বাতিল করেছেন। আমরা তৃণমূল পর্যায় থেকে ফুটবলার বানাই। এমন কর্দমাক্ত মাঠ আমাদের ছেলেদের পক্ষে। ছেলেরা আত্মবিশ্বাসী ছিল পয়েন্ট ছিনিয়ে নিতে। আমরা প্রথম লেগেও রাসেলের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছিলাম। এ জন্যই হয়ত তারা ভয় পেয়েছে আমাদের সঙ্গে এমন মাঠে পয়েন্ট হারাবে। তাই তারা ম্যাচ কমিশনারকে চাপ সৃষ্টি করেছেন ম্যাচ পিছিয়ে দিতে।