২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে আজ নতুন নিউজিল্যান্ড

  • হারারেতে প্রথম ওয়ানডে আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত মাসেই জিম্বাবুইয়ে সফর করে গেছে দ্বিতীয় সারির ভারতীয় ক্রিকেট দল। নতুন চেহারার সেই দলটিকে অনেকে এমনকি দ্বিতীয় সারির হিসেবে স্বীকার করতেও দ্বিধা করেছেন। এবারও আরেকটি হোমসিরিজ জিম্বাবুইয়ের। এবার নতুন নিউজিল্যান্ড তাদের প্রতিপক্ষ। তবে নিউজিল্যান্ড অবশ্য পূর্ণ শক্তির দল নিয়েই এসেছে। কিন্তু কিউই নামে পরিচিত দলটি এবার খেলবে ‘আওটিয়েরোয়া’ নামে! এটি একটি মাউরি ভাষা। মাউরি ভাষা সপ্তাহ উদ্যাপনের লক্ষ্যে এবার জিম্বাবুইয়ে ও দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে এ নাম নিয়েই খেলবে তারা। নতুন নামের নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে এবার আরেকটি পরীক্ষা জিম্বাবুইয়ের। আজ বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টায় হারারে স্পোর্টস ক্লাবে প্রথম ওয়ানডে। সিরিজে তিন ওয়ানডে ও একটি টি২০ খেলবে সফরকারী নিউজিল্যান্ড।

গত মাসে দ্বিতীয় সারির ভারতীয় দলকে বাগে পেয়েও সেটা কাজে লাগাতে পারেনি স্বাগতিক জিম্বাবুইয়ে। আজিঙ্কা রাহানের নেতৃত্বে ভারত ৩-০ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে। তবে ওই সিরিজে দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার পর একটি টি২০ ম্যাচ জিতেছে স্বাগতিকরা। আর সেটাই বিশ্বকাপ রানার্সআপ নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে অনুপ্রেরণা ও আত্মবিশ্বাসের কারণ হতে পারে জিম্বাবুইয়ের জন্য। অধিনায়ক এলটন চিগুম্বুরার নেতৃত্বে অবশ্য প্রথম দুই ওয়ানডের জন্য যে দল ঘোষণা করেছে তারা সেখানে ভারতের বিরুদ্ধে খেলা দলটির চার ক্রিকেটার নেই। পেসার ব্রায়ান ভিটোরি, স্পিনার ম্যালকম ওয়ালার, ডোনাল্ড ট্রিপানো এবং রিচমন্ড মুতুম্বামি বাদ পড়েছেন। দলে ফিরেছেন ক্রেইগ আরভিন, ক্রিস এমপোফু, জন নিয়ম্বু এবং লুক জোঙ্গে। অপরদিকে, নিউজিল্যান্ড দলে এবার একেবারেই নতুন মুখ জর্জ ওয়ার্কার। ২৫ বছর বয়সী ওয়ার্কার কার্যকর অলরাউন্ডার। মিডলঅর্ডারে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বাঁহাতি অর্থোডক্স বোলিং করতে সক্ষম এ ক্রিকেটার আন্তর্জাতিক অভিষেকের অপেক্ষায় আছেন। এছাড়া নিয়মিত অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম ছাড়া দলে পুরনোরাই আছেন।

কেন উইলিয়ামসনের জন্য দারুণ কিছু করে দলকে শতভাগ সফলতা এনে দেয়ার চ্যালেঞ্জ এবার। তাঁর জন্য দারুণ একটা সময় অপেক্ষা করছে এবার জিম্বাবুইয়ে সিরিজে। কারণ এই প্রথম নতুন একটি নাম নিয়ে খেলতে নামছে নিউজিল্যান্ড দল। জার্সির সামনের দিকে ‘আওটিয়েরোয়া’ লেখা নিয়ে নামবে তারা। জিম্বাবুইয়ের পর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেও এই নাম নিয়েই খেলবে তারা। বিশ্ববাসীর কাছে মাউরি ভাষার এ নামেও এখন পরিচিতি পাবে বিশ্বকাপ রানার্সআপরা। সেদিক থেকে উইলিয়ামসনের সুযোগ নতুন এ নামটিকে স্মরণীয় করে রাখার মতো সাফল্য এনে দেয়ার। আর জিম্বাবুইয়েও নিজেদের ফিরে পেতে মরিয়া হয়েই নামবে তাদের বিরুদ্ধে।