২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দিনাজপুরে পুলিশের মোটরসাইকেলে কলেজছাত্রী অপহরণ

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলায় পুলিশের মোটরসাইকেলে কলেজছাত্রীকে অপহরণের আট দিন পেরিয়ে গেলেও অপহৃতাকে পুলিশ উদ্ধার করতে পারেনি। এ বিষয়ে অপহৃত কলেজছাত্রীর পিতা সানাউল্লাহ বাদী হয়ে ওই পুলিশ সদস্যসহ চারজনকে আসামি করে দিনাজপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন টাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেছেন। আদালত চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে তদন্তপূর্বক ৬০ দিনের মধ্যে রিপোর্ট দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুরের খানসামা থানার ৬ নম্বর গোয়ালডিহি ইউনিয়নের বিলাত আলী শাহ্পাড়ার সানাউল্লাহর মেয়ে সুমি আক্তার (১৬) রানীরবন্দর ইছামতি মহিলা ডিগ্রী কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। সে গত ২৫ জুলাই কলেজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে একই এলাকার মোজাম্মেল হকের পুত্র মোঃ জয়নুল (২৬), আবুল হোসেনের পুত্র আব্দুর রহিম (২৮), দিনাজপুরের বোঁচাগঞ্জ থানার পুলিশ সদস্য শাহিনের সহায়তায় তারই ডিসকভার মোটরসাইকেলে কলেজছাত্রী সুমিকে জয়নুল অপহরণ করে নিয়ে যায়। অপহরণের আট দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ এখনও তাকে উদ্ধার করতে পারেনি। অপহরণে সহায়তাকারী শাহিনের বাড়ি রংপুরের বদরগঞ্জ থানার লালদীঘি এলাকার দিলালপুরে। সে বর্তমানে দিনাজপুরের বোঁচাগঞ্জ থানায় কনস্টেবল পদে কর্মরত রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, সুমিকে অপহরণের সহায়তা করার পরও তার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত কোন বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। সে বীরদর্পে তার কর্মস্থলে চাকরি করছে। অভিযোগ রয়েছে, এর আগে শাহিন খানসামা থানায় কর্মরত থাকাকালীন অপরাধচক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে। তার বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন বিষয়ক মামলাও রয়েছে।

নীলফামারীতে ১৫ ঘর পুড়ে ছাই

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ ভয়াবহ অগ্নিকা-ে জেলা সদরের গোড়গ্রাম ইউনিয়নের মাঝাপাড়া গ্রামে ৬ পরিবারের ১৫ ঘর ছাই হয়েছে। এ সময় অগ্নিদগ্ধ হয়ে তিনটি ছাগল ও ৩টি গরু মারা যায়। শুক্রবার রাত ১২টার দিকে ওই গ্রামের জগদীশ চন্দ্র রায়ের বাড়ির গোয়ালঘরে মশার কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে এ ঘটনা ঘটে।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া