২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তেলের সঙ্গে কোকেন ॥ তদন্তে সতর্

অনলাইন রিপোর্টার ॥ চট্টগ্রাম বন্দরে সূর্যমূখী তেলের সঙ্গে কোকেন আমদানির মামলা তদন্তে সর্তকর্তা অবলম্বনের জন্য আবারও তদন্তকারী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে মামলার আলামতগুলো যথাযথভাবে সংরক্ষণের জন্য আদালত ফের নির্দেশ দিয়েছেন। রবিবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম ফরিদ আলম এ আদেশ দিয়েছেন।

রবিবার তদন্ত কর্মকর্তা নগর গোয়েন্দা পুলিশের সহকারি কমিশনার (উত্তর) মো.কামরুজ্জামান অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করেন। এ মামলার তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের সময় ধার্য ছিল আজ। আদালত তদন্তের অগ্রগতিতে সন্তোষ প্রকাশ করে দু’টি নির্দেশ দেন।

গত ৮ জুলাই আদালতের নির্দেশে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চট্টগ্রাম বন্দরে গিয়ে ১০৭টি সানফ্লাওয়ার তেলের ড্রাম থেকে তিন কৌটা করে মোট ৩২১ কৌটা নমুনা সংগ্রহ করেন। আদালতের নির্দেশে সেগুলো ১০৭টি করে তিন ভাগ করে রাসায়নিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয় ঢাকায় আর্মড ফোর্সেস ফুড এন্ড ল্যাবরেটরিজ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এবং সিআইডিতে।

২৩ জুলাই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নমুনা পরীক্ষার রাসায়নিক ফলাফল পান তদন্ত কর্মকর্তা সহকারি পুলিশ কমিশনার (ডিবি-উত্তর) মো.কামরুজ্জামান। এতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা জানিয়েছেন, রাসায়নিক পরীক্ষায় তারা ৯৬ নম্বর ড্রামে কোকেনের অস্তিত্ব পেয়েছেন। পর্যবেক্ষণে উল্লেখ করেছেন, ৫৯ নম্বর ড্রামেও কোকেনের উপস্থিতি আছে বলে তাদের সন্দেহ হচ্ছে। বিষয়টি পুন:পরীক্ষা প্রয়োজন।

এর আগে ২০ জুলাই সিআইডির রাসায়নিক পরীক্ষার ফলাফল পান নগর গোয়েন্দা পুলিশ। সিআইডির পরীক্ষায়ও ৯৬ নম্বর ড্রামের তেলে কোকেনের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে।