১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গাজীপুরের সিটি মেয়র মান্নানের বিরুদ্ধে ফের মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর ॥ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের (জিসিসি) মেয়র ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অধ্যাপক এম এ মান্নানকে রবিবার আরো একটি মামলায় গ্রেফতার দেখিয়েছে জয়দেবপুর থানা পুলিশ। চলতি বছরের ৪ জানূয়ারি দিবাগত রাতে গাজীপুর মহানগরের জয়দেবপুর চৌরাস্তা এলাকায় বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় অধ্যাপক মান্নানকে গ্রেফতার দেখানোর জন্য পুলিশ গত বৃহস্পতিবার আদালতে আবেদন করে। এর প্রেক্ষিতে রবিবার গাজীপুরের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম মোসাঃ রেহানা আক্তারের আদালত ওই আবেদন মঞ্জুর করেন। এনিয়ে অধ্যাপক এম এ মান্নানকে মোট ১০টি মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

আদালত ও পুলিশ সূত্র জানায়, চলতি বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় জয়দেবপুর থানার নাশকতার একটি মামলায় ঢাকার বারিধারার বাসা থেকে মেয়র মান্নানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তারপর থেকে তিনি আদালতের নির্দেশে কারাগারে রয়েছেন।

গাজীপুরের কোর্ট ইন্সপেক্টর রবিউল ইসলাম জানান, চলতি বছরের ৪ জানূয়ারি দিবাগত রাত সোয়া ৯টার দিকে গাজীপুর মহানগরের জয়দেবপুর চৌরাস্তা এলাকায় বাসে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় অধ্যাপক মান্নানকে গ্রেফতার দেখানোর জন্য পুলিশ গত বৃহস্পতিবার আদালতে আবেদন করে। এর প্রেক্ষিতে রবিবার গাজীপুরের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম মোসাঃ রেহানা আক্তারের আদালত ওই আবেদন মঞ্জুর করেন। পুলিশ আবেদনে জানায়, গত ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রে কথিত হত্যা দিবস উপলক্ষ্যে নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে বিএনপি ও জামায়াতের ৬০/৭০ নেতা কর্মী ৪ জানূয়ারি দিবাগত রাত সোয়া ৯টার দিকে জয়দেবপুর চৌরাস্তা এলাকায় বাসে অগ্নিসংযোগ করে। ওই ঘটনায় ৫০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ১০/২০ জনকে আসামী করে এসআই মোঃ আর্শাদ মিয়া বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় এজহার দায়ের করেন। তবে সেখানে মেয়র মান্নানের নাম নেই। ঘটনার সময় স্থানীয়রা মান্নানসহ অন্য আসামীদের দৌড়ে পালাতে দেখেছে। দায়েরকৃত ওই মামলায় স্বাক্ষীরা অধ্যাপক এম এ মান্নান ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়ে স্বাক্ষ্য প্রদান করেছে। অধ্যাপক এম এ মান্নান জেলার বিভিন্ন এলাকায় বিএনপি/ জামায়াত শিবির ঘেষিত বিভিন্ন নাশকতা মূলক কর্মকান্ডের অর্থের যোগানদাতা এবং নির্দেশকারী ও পরিকল্পনা বাস্তবায়নের সার্বিক রক্ষনাবেক্ষণকারী। নতুন এ মামলাটিসহ এ পর্যন্ত অধ্যাপক এম এ মান্নানের বিরুদ্ধে মোট ১০ টি মামলা রয়েছে। তার অবর্তমানে গত ৮ মার্চ থেকে প্যানেল মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।