২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বন্যপ্রাণী পাহারায় ড্রোন!

বন্যপ্রাণী পাহারায় ড্রোন!

এবার ড্রোন ব্যবহার করে বন্যপ্রাণী পাহারা দেওয়ার কঠিন কাজটি সহজেই সমাধান হবে। বিশেষ করে যেসব বন্যপ্রাণী তাদের নির্দিষ্ট এলাকা ত্যাগ করে লোকালয়ে প্রবেশ করতে উদ্যত হবে তাদের সহজেই শনাক্ত করা যাবে। যুদ্ধক্ষেত্রে বোমাবর্ষণ, গোয়েন্দাগিরি কিংবা অনুরূপ বহু কাজে সহায়তা করছে

মানুষবিহীন আকাশযান ড্রোন। তবে এবার ড্রোনকে নতুন এক কাজে ব্যবহারের পরিকল্পনা করেছে ভারতীয় বিজ্ঞানীরা। এতে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে অনেকখানি সুবিধা হবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ভারতের দেরাদুনের ওয়াইল্ডলাইফ ইন্সটিটিউট অব ইন্ডিয়ার (ডব্লিউআইআই) গবেষকরা ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহার করে বন্যপ্রাণী পর্যবেক্ষণের এ প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছেন। গবেষকরা জানিয়েছেন, বিশেষ করে যেসব এলাকায় মানুষ ও বন্যপ্রাণী অত্যন্ত কাছাকাছি থাকে সেখানে এ ড্রোন প্রযুক্তি খুবই কার্যকর হবে।

বাঘ বা হাতি প্রায়ই গ্রামাঞ্চলে প্রবেশ করে। কোথাও যদি গ্রামবাসী এ ধরনের পরিস্থিতির অভিযোগ করে তাহলে ড্রোন পাঠিয়ে তা দ্রুত পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব। এর পর জিপিএস ডিভাইস ব্যবহার করে প্রাণীগুলোর সঠিক অবস্থান চিহ্নিত করে বন কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া সহজ হয়ে যাবে।

এ প্রসঙ্গে কর্বেট টাইগার রিজার্ভের ফিল্ড ডিরেক্টর সমির সিনহা জানান, এ ধরনের মানুষবিহীন আকাশযান বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ডব্লিউআইআইর গবেষক কে রমেশ বলেন, আমরা দেখেছি সাধারণ নজরদারির পাশাপাশি বন্যপ্রাণীর ওপর ড্রোনের মাধ্যমে নজরদারি খুবই কার্যকর। এ ছাড়া সংঘাতপূর্ণ এলাকায় এটি খুবই কার্যকর। কোন বাঘ বা হাতি লোকালয়ে ঢুকে পড়লে আমরা ড্রোন পাঠিয়ে তাদের অনুসরণ করতে পারি সহজেই।

-সূত্র-ইন্টারনেট