২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দাসিয়ারছড়ায় পতাকা উত্তোলনের স্থান নিয়ে সংঘর্ষ ॥ আহত ১০

  • অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন

রাজুমোস্তাফিজ, কুড়িগ্রাম থেকে ॥ ছিটমহল ‘স্বাধীন’ হওয়ার দ্বিতীয় দিন দাসিয়ারছড়া ছিটমহলে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়েছে। কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার দাসিয়ারছড়ায় জাতীয় পতাকা উত্তোলনের স্থানটি দখল নিয়ে এ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন মাহমুদ। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে দাসিয়ারছড়ার কালিরহাটে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এনিয়ে দাসিয়ারছড়ায় দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। আরও সংঘর্ষের আশঙ্কা করেছেন স্থানীয়রা। কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার তবারক উল্লাহ জানান, এটি একটি বিছিন্ন ঘটনা। তারপরও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দাসিয়ারছড়া ছিটে রবিবার অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে কালিরহাট বাজারের পাশের একটি জমি দখলকে কেন্দ্র করে আব্দুল হাই ও সিরাজ মিয়ার লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় উভয়পক্ষ লাঠিসোটা, বল্লম, রামদা এবং দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন আব্দুল হাইয়ের পক্ষের আব্দুল হাই (৫০), রাসেল (১৭), ওবায়দুল (৫২) ও খায়রুল (২২) এবং সিরাজ গ্রুপের সিরাজ মিয়া (৭০), এমদাদুল (৩৮), হারুন অর রশিদ (৩৫), আলেয়া বেগম (২৮), আবুল কালাম আজাদ (৩২), আবু সিদ্দিক (২৮) ও সাহেরা বানু (২০)। আহতদের ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

দাসিয়ারছড়ার আলতাফ হোসেন ও গোলাম মোস্তফা জানান, কালিরহাট বাজার সংলগ্ন ছিটমহল স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলন স্থানটি পৈত্রিক সূত্রে আব্দুল হাই এবং ক্রয়সূত্রে সিরাজ মিয়া দাবি করে আসছে। ১৮ শতক এ জমি নিয়ে বিরোধ দীর্ঘ দিনের। রবিবার দুপুর একটায় এ বিরোধপূর্ণ জমি বাঁশ দিয়ে বেড়া দেয়া শুরু করে আব্দুল হাইয়ের লোকজন। এখবর পেয়ে সিরাজ মিয়া লোকজন নিয়ে বাধা দেয়। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষে সংঘর্ষ বেধে যায়। দেশী অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বদরুদ্দোজা বলেন, পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনা নিয়ে কোন পক্ষ মামলা দায়ের করেনি।