২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রেসিডেন্ট পদে জো বাইডেন!

  • ধাক্কা খেতে পারেন হিলারি ॥ সমর্থকদের উদ্বেগ

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা ভেবে দেখছেন। তিনি সেই পদে প্রার্থী হওয়ার পদক্ষেপ নিলে তা ডেমোক্র্যাটিক দলে এবং এর অগ্রগামী প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের মনে ঝাঁকুনির সৃষ্টি করবে। নিউইয়র্ক টাইমস পত্রিকা শনিবার এ কথা জানায়। খবর টেলিগ্রাফ অনলাইনের।

ঐতিহ্যগতভাবে কোন ডেমোক্র্যাট এরূপ প্রতিদ্বন্দ্বিতার চূড়ান্তভাবে এগিয়ে আছেন এমন নিজ দলীয় কোন সদস্যের বিরুদ্ধে লড়তে যান না। বাইডেন আনুষ্ঠানিকভাবে হিলারির প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ার কথা এখনও বলেননি। টাইমস জানায়, তবুও বাইডেনের উপদেষ্টারা ডেমোক্র্যাটিক নেতা ও দাতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে শুরু করেছেন। এসব নেতা ও দাতা এখনও হিলারিকে সমর্থন দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেননি বা একজন প্রার্থী হিসেবে হিলারির ঝুঁকিগুলো ক্রমশ দৃশ্যমান হতে থাকায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

শনিবারই নিউইয়র্ক টাইমসের কলামিস্ট মরিন ডাউড এ খবর জানান যে, আইওয়া ও নিউ হ্যাম্পশায়ার অঙ্গরাজ্য দুটিতে হিলারিকে চ্যালেঞ্জ করার পদক্ষেপ নেয়ার বিষয়ে বন্ধুবান্ধব, পরিবারের সদস্য ও দাতাদের সঙ্গে কথা বলতে বাইডেন তার বাসভবনে বৈঠক করে যাচ্ছেন। প্রেসিডেন্ট পদে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়নের লড়াই এ দুটি অঙ্গরাজ্যেই শুরু হবে।

সাবেক ফার্স্টলেডি, সাবেক মার্কিন সিনেটর ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি কোন প্রশ্নের স্পষ্ট জবাব দেয়া এড়িয়ে যাওয়ার মনোবৃত্তিপরায়ণ বলে কখনও কখনও তার সমালোচনা করা হয়। পররাষ্ট্র দফতরে যোগাযোগের জন্য তার ব্যক্তিগত ই-মেইল এ্যাকাউন্ট ব্যবহার নিয়ে বিতর্ক দেখা দেয়ার পর তার জন্য কিছুটা ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে বলেও দেখা যায়। তিনি ৩০ হাজার ই-মেইল মুছে দিয়ে তার ব্যক্তিগত সার্ভার পরিষ্কার করাতেও বিতর্কের সৃষ্টি হয়। ১৭ জন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় মনোনয়ন চাচ্ছেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন ফ্লোরিডার সাবেক গবর্নর জেব বুশ এবং উইসকনসিনের রক্ষণশীল গবর্নর স্কট ওয়াকার। এখন পর্যন্ত পাঁচজন ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট পদে দলের মনোনয়ন চাচ্ছেন বলে ঘোষণা করেছেন। তারা হলেনÑ হিলারি ক্লিনটন, ডারমন্টের স্বতন্ত্র সিনেটর বার্নি স্যান্ডারস, ম্যারিল্যান্ডের সাবেক গবর্নর মার্টিন ও ম্যালি, ভার্জিনিয়ার সাবেক সিনেটর জিম ওয়েব এবং রোড আইল্যান্ডের সাবেক সিনেটর ও গবর্নর লিংকন চ্যাকি। হিলারি ডেমোক্র্যাটিক ভোটারদের শতকরা ৫৫ ভাগ সমর্থন পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাটদের তুলনায় এগিয়ে আছেন। কুইনিপিয়াক ইউনিভার্সিটির বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক জরিপে এ কথা বলা হয়। স্যান্ডারস শতকরা ১৭ ভাগ এবং অঘোষিত অবস্থানেও বাইডেন শতকরা ১৩ ভাগ সমর্থন চান। বাইডেনের দীর্ঘদিনের এক সমর্থক বলেন, ভাইস প্রেসিডেন্টের নির্বাচনী প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে তার ছেলের আগ্রহ বাবার মনকে গভীরভাবে নাড়া দিয়েছিল। বাইডেন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাইলে তার পথ সহজ হবে না। প্রেসিডেন্ট হিসেবে এক নারীকে নির্বাচিত করার ধারণায় উৎসাহী ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে হিলারির প্রভূত সমর্থন রয়েছে। তার প্রচার বিভাগ এরই মধ্যে কোটি কোটি ডলার সংগ্রহ করেছে। তদুপরি ৭২ বছর বয়স্ক বাইডেন অতীতে প্রচারাভিযানে বাধাবিপত্তির মুখে পড়ে বিব্রত হয়ে পড়েছিলেন বলে দেখা যায়। তাকে মাঠকর্মী দল গড়ে তোলার কঠিন কাজটিও করতে হবে।

ওই কথাবার্তা সম্পর্কে ওয়াকিফহাল এক ডেমোক্র্যাট জানান, বাইডেনকে তার দুঃসময়ে শক্তি যোগাতে চান এমন দাতা ও বন্ধুরা সংগঠিত হচ্ছেন। স্বাধীন মনোভাবাপন্ন দলীয় কর্মীদের মধ্যে হিলারির সমর্থন হ্রাস পাচ্ছে বলে সাম্প্রতিক জরিপে দেখা যায়। এতে ভাইস প্রেসিডেন্টের জন্য দলের মনোনয়ন পাওয়ার পথ তৈরি হতে পারে বলে আভাস পাওয়া যায়। মিসেস ডাউড জানান, ব্রেন ক্যান্সারে আক্রান্ত জো বাাইডেন মৃত্যুশয্যায় থাকা তার বাবার কাছ থেকে প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার প্রতিশ্রুতি আদায়ের চেষ্টা করেছিলেন।