২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রোগে তিন শতাধিক ছাগলের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে তিন শতাধিক ছাগলের মৃত্যু হয়েছে কিশোরীগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে। হঠাৎ করে অজ্ঞাত এই রোগ ছড়িয়ে পড়ায় এবং ছাগলের মৃত্যুতে ছাগল পালনকারী খামারীসহ কৃষকরা দিশাহারা হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসী অভিযোগ করে জানায়, উপজেলার প্রতিটি গ্রামে অজ্ঞাত এই রোগে মড়ক দেখা দিয়েছে।

কিশোরীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের কেশবা গ্রামের ছাগল পালনকারী খামারী আব্দুল মালেক জানান, গত এক সপ্তাহের অজ্ঞাত রোগে তার ৫টি ছাগল মারা গেছে। তিনি বলেন, ছাগলগুলোর প্রথমে পেট ফুলে গিয়ে মুখ দিয়ে লালা পড়ে। এরপর শুরু হয় পাতলা পায়খানা। পাতলা পায়খানা করার দু’একদিনের মধ্যে ছাগলগুলো মারা যায়। নিতাই ইউনিয়নের পানিয়ালপুকুর খোলাহাটি গ্রামের কৃষক হামিদুল জানান, তার দুটি ছাগল মারা গেছে। তিনি ছাগল দুটির চিকিৎসার জন্য উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসে নিয়ে গিয়েছিলে কিন্তু চিকিৎসায় কোন কাজ হয়নি। ওই গ্রামের এমদাদুল হকের ২টি, কাল্টু মামুদের ৩টি ও মালি বেওয়ার ১টি ছাগল মারা য়ায়।

বিভিন্ন সূত্রমতে, গত এক সপ্তাহে উপজেলার চাঁদখানা ইউনিয়নে ১০০টি, বাহাগিলি ইউনিয়নে ৫০টি, কিশোরীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে ৪৫টি, মাগুড়া ইউনিয়নে ৩৩টি, গাড়াগ্রাম ইউনিয়নে ১৬টি, রণচ-ী ইউনিয়নে ৩৮টি, পুঁটিমারী ইউনিয়নে ১৮টি এবং বড়ভিটা ও নিতাই ইউনিয়নেও অজ্ঞাত রোগে ছাগল মারা গেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ হোসাইন মোহাম্মদ রাকিবুল বলেন, উপজেলায় ব্যাপকহারে ছাগল অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত বা মারা যাচ্ছেÑ এমন খবর তার কাছে নেই বা কেউ জানায়নি।