২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হিলারির চেয়ে বাইডেনকে হারানো কঠিন হবে

মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সম্ভাবনা খতিয়ে দেখছেন বলে প্রকাশিত খবর যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আলোচনার ঝড় তুলেছে। খবর ইয়াহুনিউজের।

রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়নপ্রত্যাশী জোন্যাল্ড ট্রাম্প মনে করেন যে, বাইডেন সম্ভবত ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়ন প্রার্থী হিসেবে অগ্রগামী হিলারি ক্লিনটনকে পরাজিত করতে পারেন।

ট্রাম্প এবিসির ‘দিস উইক’ অনুষ্ঠানে বলেন, হিলারির জনপ্রিয়তা ব্যাপকভাবে হ্রাস পাচ্ছে। কাজেই বাইডেনের মতো কেউ সম্ভবত প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নামতে পারেন, খুব ভাল করতে পারেন এবং সম্ভবত জয়ী হতে পারেন। ট্রাম্প মনে করেন, হিলারিকে হারানো যতখানি কঠিন হবে, তার চেয়ে বেশি কঠিন হবে বাইডেনকে হারানো। তিনি মিট প্রেসে বলেন, আসলে আমি মনে করি, যদি প্রার্থী হন তা হলে হিলারিকে পরাজিত করা সহজ হবে। কিন্তু হিলারিই যে প্রার্থী হচ্ছেন তা নিয়ে আমি এত নিশ্চিত নই। তবে কুইনিপিয়াক ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ জরিপে বলা হয়, সাধারণ নির্বাচনে হিলারি ও বাইডেন উভয়েই ট্রাম্পকে ১২ পয়েন্টে হারাতে পারেন। নিউইয়র্ক টাইমস জানায়, বাইডেন হিলারির অগ্রগতির খোঁজখবর নিচ্ছেন এবং তিনি প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে দিয়ে আরও চমকপ্রদ ইতিহাস সৃষ্টি করতে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির আগ্রহের প্রতি সর্বসময়ে শ্রদ্ধাশীল আছেন। তবে তিনি এখনও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ার সম্ভাবনা নাকচ করে দেননি। তার সবচেয়ে বড় ছেলে বো সম্প্রতি ব্রেন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে ৭২ বছর বয়স্ক ভাইস- প্রেসিডেন্ট প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হওয়ার কথা ভাবতে শুরু করেন।

ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কমিটির চেয়ার ডেবি ওয়াসেরম্যান হুলজ ‘মিট দ্য প্রেসে’ বলেন, পদাসীন ভাইস প্রেসিডেন্ট যদি প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান, তাহলে সে সুযোগ সব সময়ই রয়েছে। কিন্তু আমাদের এ কথা স্মরণ রাখতে ও ভেবে দেখতে হবে যে, ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেন সবেমাত্র কোন অভিভাবকের জন্য যা সবচেয়ে হৃদয়বিদারক এমন বিয়োগান্তক ঘটনা সয়ে এসেছেন। ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডারস বলেন, বাইডেন তার খুবই প্রিয়, কিন্তু তিনি মনে করেন যে, আমেরিকান জনগণ প্রচলিত এস্টাবলিশমেন্ট রাজনীতির বাইরে যেতে চায়। তিনি কুইরিপিয়াকের জরিপে হিলারির পেছনে দ্বিতীয় অবস্থানে এবং ৪ পয়েন্টে বাইডেনের চেয়ে এগিয়ে আছেন। স্যান্ডারস এবিসির ‘দিস উইকে’ বলেন, সরকারকে কোটিপতিদের নয়, মধ্যবিত্তের প্রয়োজনের দিকে দৃষ্টি দিতে হবে। হিলারির প্রচার বিভাগের যোগাযোগ পরিচালক জেনিফার প্যালমিয়েরি বলেন যে, বাইডেনের প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্ভাবনা নিয়ে হিলারি উদ্বিগ্ন নন।