১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গৃহবধূকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা মামলায় শ্বশুর গ্রেফতার

সংবাদদাতা, বোয়ালমারী, ফরিদপুর, ৩ আগস্ট ॥ বোয়ালমারী উপজেলার শুকদেবনগর গ্রামের রিফাত (২৪)-এর নাবালিকা স্ত্রী ফিরোজার (১৬) আত্মহত্যার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় শ্বশুর মতিয়ার শেখকে পুলিশ শনিবার আলফাডাঙ্গার শিরগ্রাম বাজার থেকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার অভিযোগে দায়েরকৃত এ মামলায় অন্য ৫ আসামি শাশুড়ি জরিনা বেগম, চাচাতো দেবর জিহাদ, চাচা শ্বশুর সেকেন্দর আলী এবং চাচী শাশুড়ি মমতাজ বেগম পলাতক আছে। ফিরোজার পিতা মোক্তার হোসেন জানান, তার ৯ম শ্রেণীতে পড়ুয়া নাবালিকা মেয়েকে নানাভাবে প্রলোভন দেখিয়ে গত ২৪ মার্চ রিফাত তুলে নিয়ে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকেই সাংসারিক কাজ করতে না পারার অভিযোগে তার মেয়ের ওপর জুলুম নির্যাতন করতে থাকে পরিবারের সবাই। গত ১৯ জুলাই মেয়ের আত্মহত্যার খবর পেয়ে তিনি জামাই বাড়ি গিয়ে দেখেন গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় চেয়ারের উপর মেয়ের লাশ পড়ে আছে।

এ ঘটনায় প্রথমে বোয়ালমারী থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়। পরে ময়নাতদন্ত রিপোর্টের পর তিনি বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন। বোয়ালমারী থানার ওসি একেএম আমিনুল হক বলেন, মামলার তদন্ত চলছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।