১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মেয়র আনিসুল হককে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগে যুবক আটক

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা (উত্তর) সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হককে মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগে এস এম নাহিদ হ্যাপী নামের এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার দুপুরে র‌্যাব-২-এর একটি টিম তাকে এফডিসির সামনে থেকে আটক করে। আটকের পর হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ স্বীকার করেছে নাহিদ।

র‌্যাব-২ অধিনায়ক লে. কর্নেল এস এম মাসুদ রানা জনকণ্ঠকে বলেন, গুলশান থানার একটি জিডির অভিযোগে তাকে আটক করা হয়। এ যুবক গত ১৪ জুলাই মেয়র আনিসুল হককে মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকি দিয়েছিল। সোমবার মেয়র বাদী হয়ে গুলশান থানায় এ সংক্রান্ত একটি জিডি করার পর পরই র‌্যাব-২ তাকে আটক করে। এ সময় তার সঙ্গে ১২১টি ইয়াবাও উদ্বার করা হয়।

জানা গেছে, আটক নাহিদের বাড়ি সিরাজগঞ্জে। তার পিতার নাম হাজী নুরুল ইসলাম। তিনি রাজধানীর গাবতলীতে থাকেন। নাহিদ নিজেকে মাঝে মাঝে যুবনেতা বলে পরিচয় দিলেও র‌্যাব জানিয়েছে, সে আসলে ইয়াবাসক্ত। মানুষকে হুমকি দিয়ে টাকা আদায় ও চাঁদাবাজি করাই তার কাজ।

গুলশান থানার পুলিশ জানায়, গত ১৪ জুলাই নাহিদ প্রথমে মেয়র আনিসুল হকের মোবাইল ফোনে কথা বলার শুরুতেই প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এতে মেয়র কলটি কেটে দেন। তখন মোবাইলে আবারও একটি এসএমএস পাঠিয়ে বলা হয়-ফোনটা কেটে দিয়ে ভাল করলেন না। এর জন্য মাসুল দিতে হবে। এ ধরনের হুমকির বিষয়টি প্রথমে খুব একটা আমলে নেননি আনিসুল হক। কিন্তু এক পর্যায়ে হুমকির বিষয়টি হাল্কাভাবে নেয়ার কোন অবকাশ নেই এমন উপলব্ধি থেকে শেষ পর্যন্ত সোমবার গুলশান থানায় একটি জিডি করেন।

জিডির পর পরই র‌্যাব সদর দফতর তৎপর হয়। এতে র‌্যাব-২ কে নির্দেশ দেয়া হয় নাহিদকে আটক করতে। এরপর অত্যাধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগ করে সোমবার দুপুরে এফডিসির সামনে থেকে নাহিদকে আটক করে।

এ সম্পর্কে লে. কর্নেল এস এম মাসুদ রানা জনকণ্ঠকে বলেন, নাহিদ আসলে ইয়াবাসক্ত। সে এ ধরনের হুমকি দিয়ে টাকা পয়সা নেয়। কখনও কখনও বিত্তবানদের ফোনে তাদের ছেলেমেয়ে অপহরণের হুমকি দিয়ে টাকা পয়সা আদায় করত। একইভাবে মেয়র আনিসুল হককেও প্রাণনাশের হুমকি দেয়। তার সম্পর্কে বিস্তারিত খতিয়ে দেখা হচ্ছে।