২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে দুই মাসে সর্বোচ্চ লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পুঁজিবাজারে স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে। তালিকাভুক্ত বেশিরভাগ কোম্পানির দর বাড়ার কারণে সপ্তাহের তৃতীয় দিনেও সূচকের উর্ধগতি দিয়ে লেনদেন হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিকসহ সব ধরনের বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়ায় গত দুইদিনের তুলনায় বাজারে আরও তেজীভাব দেখা গেছে। মঙ্গলবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ৯২৮ কোটি ২৭ লাখ টাকার শেয়ার; যা গত দুই মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগে ১ জুন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার কোটি টাকার শেয়ার।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে প্রধান বাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে (ডিএসই) বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়তে থাকে। সারাদিন সূচকের বৃদ্ধি শেষে ডিএসইতে প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৯ দশমিক ২৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৮৭১ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৪ দশমিক ৭৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ২০৭ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ৩ দশমিক ২৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯০৪ পয়েন্টে।

মঙ্গলবারে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩২৩টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৬টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১২৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির।

ডিএসইতে খাতভিত্তিক লেনদেনের সেরা স্থান দখল করেছে প্রকৌশল খাতটি। সারাদিনে সেখানে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ১৬৫ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের প্রায় ১৮ ভাগ। দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল মোট জ্বালানি এবং শক্তি খাতের কোম্পানিগুলো। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ১৬০ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৭ দশমিক ৩৬ ভাগ। এ ছাড়া লেনদেনের তৃতীয় স্থান দখল করেছে ওষুধ এবং রসায়ন খাতটি। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ ১১৮ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের প্রায় ১৩ ভাগ। ডিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইউনাইটেড এয়ার, ইসলামী ব্যাংক, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বেক্সিমকো, বিএসআরএম স্টিল, বেক্সিমকো, স্কয়ার ফার্মা, ফ্যামিলি টেক্স, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ও শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড।

দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : প্রিমিয়ার সিমেন্ট, বিচ হ্যাচারী, ফাস্ট বাংলাদেশ ফিক্সড ইনকাম মিউচুয়াল ফান্ড, ৭ম আইসিবি, মুন্নু স্টাফলারস, লিব্রা ইনফিউশন, ইউনাইটেড এয়ার, নর্দান জুটস, ইবনে সিনা ও বিডি কম।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : এক্সিম ব্যাংক ১ম মিউচুয়াল ফান্ড, তাল্লু স্পিনিং, এআইবিএল ১ম মিউচুয়াল ফান্ড, বিএসআরএম লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক, আইএফআইসি ১ম মিউচুয়াল ফান্ড, আইসিবি ১ম এনআরবি, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ, লিগ্যাসি ফুটওয়্যার ও বিডি ওয়েল্ডিং।

এদিকে ঢাকার মতো অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সব ধরনের সূচক বাড়েনি। সকালে বড় ধরনের সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে দিন শেষে সিএসইর সার্বিক সূচক ৩৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৯৪০ পয়েন্টে। তবে সেখানকার বাছাই-৫০ ও বাছাই-৩০ সূচকটি আগের দিনের তুলনায় কমেছে। সিএসইতে লেনদেনে অংশ নিয়েছে ২৬১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৪টির, কমেছে ৯৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টির। সিএসইতে সারাদিনে লেনদেন হয়েছে মোট ৭০ কোটি টাকা।

সিএসইতে লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইউনাইটেড এয়ার, বেক্সিমকো ফার্মা, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, বেক্সিমকো, ফ্যামিলি টেক্স, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বিএসআরএম লিমিটেড, কেয়া কসমেটিকস, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ও বিএসআরএম স্টিল।