১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খানাখন্দে ভরা সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ যাতায়াত

  • কক্সবাজার ও চাঁপাই

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ কক্সবাজারের চকরিয়া ও পেকুয়ায় ভারি বর্ষণ ও মাতামুহুরী নদীতে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট টানা আট দিনের বন্যা পরিস্থিতির ক্রমান্বয়ে উন্নতি হয়েছে। তবে পানি নেমে যাওয়ার পর দেখা যায়, চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে বন্যার পানিতে তলিয়ে থাকা অধিকাংশ রাস্তা-ঘাট। জেলার কুতুবদিয়া, পেকুয়া, চকরিয়া ও রামু এলাকার কিছু কিছু সড়ক ভেঙ্গে অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

ওইসব সড়কের আয়তন পরিমাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে জানান, ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়ন পেরিয়ে ইবলিশের মোড় থেকে পদ্মার বামতীর সংরক্ষণ বাঁধ রোডের ওপর সংযোগ কিঃমিঃ সড়ক চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ সহড়ের মহারাজপুর ইউনিয়ন হয়ে পাঁচটি ইউনিয়নে যাওয়ার একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। কিন্তু বাঁধ রোডে ওঠার আগে সাত কিলোমিটার সড়কের ৪৯ পয়েন্টে বড় বড় খাদের সৃষ্টি হয়েছে। অর্থাৎ কোথাও পিচ কার্পেটিং আবার কোথাও কংক্রিটের খোয়া উঠে বেরিয়ে পড়েছে কাঁচা সড়ক। এসব স্থানে বড় বড় খাদ সৃষ্টি হওয়ার কারণে এই বর্ষা মৌসুমে সংযোগ সড়কটি চলাচলে একেবারে অযোগ্য হয়ে পড়েছে আবার এই সড়কটির মধ্যে পাগলা নদের ওপর যে কংক্রিটের সেতু ছিল তার বিরাট অংশের রেলিং উড়ে গিয়েছে।

রাজশাহীতে এ্যানথ্রাক্স রোগী শনাক্ত

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ তানোরে একমাস আগে গরুর মাংস খেয়ে ৯ জন এ্যানথ্রাক্স রোগে আক্রান্ত হয়েছে। তবে রাজশাহী সিভিল সার্জন জানান, ৯ জনের মধ্যে একজন এ্যানথ্রাক্স আক্রান্তের প্রমাণ মিলেছে। অন্যদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। আক্রান্তরা সবাই জেলার তানোর উপজেলার চান্দুড়িয়া ইউনিয়নের রাতৈল গ্রামের বাসিন্দা।

সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, ইতোমধ্যে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা ও পরীক্ষার জন্য ঢাকা থেকে একটি টিম গ্রামটি পরিদর্শন করে গেছেন। এদিকে গ্রামটিতে এ্যানথ্রাক্স রোগী শনাক্তের পর স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

ওরা লজ্জা ঢাকলো আত্মহত্যা করে

নিজস্ব সংবাদদাতা, মানিকগঞ্জ, ৪ আগস্ট ॥ মানিকগঞ্জের সদর উপজেলার কসবা হাজীনগর গ্রামে একই ঘরে পাশাপাশি গৃহবধূ ও তার কথিত প্রেমিকের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে অবৈধ সম্পর্ক প্রকাশ হয়ে পড়ার ভয়ে দুজন একসঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এরা হলো সৌদি প্রবাসী নজরুল ইসলামের দ্বিতীয় স্ত্রী সুইটি বেগম (২০) এবং একই গ্রামের চাঁন মিয়ার ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২২) । সোমবার রাত ১২টার দিকে দুজনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা গেছে, সৌদি প্রবাসী নজরুল ইসলামের অনুপস্থিতে সুইটির সঙ্গে দেলোয়ারের অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে উঠে। সোমবার রাত দশটার দিকে সুইটির ঘরে ঢোকে দেলোয়ার। এ সময় একই গ্রামের শহিদ মিয়া তা দেখে ফেলে। এরপর শহিদ গ্রামের কয়েকজনকে ডেকে এনে ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে দেয়। টের পেয়ে লজ্জায় দু’জন একসঙ্গে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।