২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মার্কিন বিমানে পশুর অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ বহন নিষিদ্ধ

অনলাইন ডেস্ক ॥ যুক্তরাষ্ট্রের ক`টি প্রধান এয়ারলাইন্স ঘোষণা করেছে যে বণ্য পশু শিকার করে সেগুলোর অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কেউ বিমানে নিয়ে আসতে চাইলে, তারা সেটি হতে দেবে না।

আফ্রিকার দেশ জিম্বাবুয়ের সুপরিচিত `সিসিল` নামে এক সিংহকে অবৈধভাবে শিকারের পর ডেল্টা, ইউনাইটেড এবং অ্যামেরিকান এয়ারলাইন্সের তরফ থেকে এই ঘোষণা করা হয়।

এক যৌথ বিবৃতিতে বিমান সংস্থাগুলো বলছে, এখন থেকে সিংহ, গন্ডার, চিতাবাঘ আর বুনো মোষের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ তারা পরিবহন করবে না।

আফ্রিকার বেশ ক`টি শহর ডেল্টা এয়ারলাইন্স সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করে।

গত জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের এক দন্ত চিকিৎসক ওয়াল্টার পামার তাঁর তীর-ধনুক এবং বন্দুক দিয়ে সিসিলকে হত্যা করেন।

এর পর এ নিয়ে বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠে।

১৩-বছর বয়সী `সিসিল` ছিল জিম্বাবুয়ের হোয়াঙ্গি ন্যাশনাল পার্কের সবচেয়ে সুপরিচিত বন্যপ্রাণী।

ওদিকে এই বেআইনি শিকারের দায়ে জিম্বাবুয়ের পেশাদার শিকারি থিও ব্রংকহর্স্ট এবং একটি খামারের মালিক অনেস্ট এন্ডলুভুকে আদালতের কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে।

ওয়াল্টার পামারের সঙ্গী হিসেবে তারা শিকার অভিযানে সহায়তা করেন বলে অভিযোগ করা হচ্ছে।

জিম্বাবুয়ের পুলিশ বলছে, মি. পামারকেও এই ঘটনার জন্য বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

জিম্বাবুয়েতে এই শিকার অভিযানের পেছনে মি. পামার ৫০,০০০ ডলার খরচ করেন।

বে-আইনিভাবে সিসিলকে হত্যার দায়ে ওয়াল্টার পামারের বিচার দাবি করে অনলাইনে এক আবেদনে সই করেছেন আড়াই লাখেরও বেশি মানুষ।

সূত্র: বিবিসি